‘অনুষ্ঠান মহানগর আওয়ামীলীগের, তত্ত্বাবধানে অবৈধ স্বাচিপ’

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বাধীনতা চিকিৎসা পরিষদ (স্বাচিপ) কমিটির সদস্য না হয়েও কিছু চিকিৎসক অবৈধভাবে পদ পদবী ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। মহানগর আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠিতব্য একটি সেমিনারে সার্বিক তত্ত্বাবধানের নামের তালিকায় কিছু চিকিৎসক নিজেদের স্বাচিপ নারায়ণগঞ্জ কমিটির পদবী ব্যবহার করেছে; যা সম্পূর্ণ অবৈধ বলে দাবি করেছেন স্বাচিপ কমিটির নেতৃবৃন্দ।
রোববার এক বিজ্ঞপ্তিতে স্বাচিপ থেকে জানানো হয়, সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগ কর্তৃক “সার্বজনীন স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ও জননেত্রী শেখ হাসিনা” শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দীন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বি.এম.এ কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব ডাঃ ইহতেশামুল হক চৌধুরী দুলাল।


অনুষ্ঠানের দাওয়াত পত্রে লক্ষ্য করা যায় কিছু সংখ্যক চিকিৎসক অবৈধভাবে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের পদবী ব্যবহার করেছেন। এই ব্যাপারে স্বাচিপ এর কেন্দ্রীয় কমিটি দ্বারা মনোনীত স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ বিধান চন্দ্র পোদ্দার এর সাথে কথা বললে তিনি উক্ত অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানের বিষয়ে তার ক্ষুব্ধ মনোভাব প্রকাশ করেন এবং তিনি এই অনুষ্ঠান সম্পর্কে কোন কিছুতেই অবহিত নন। তিনি আরও বলেন, অবৈধভাবে স্বাচিপের পদ-পদবী ব্যবহার করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা শীর্ষক আলোচনা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না এবং যারা স্বাচিপের পদ-পদবী অবৈধভাবে ব্যবহার করে উক্ত অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য স্বাচিপ কেন্দ্রীয় কমিটি এবং মহানগর আওয়ামীলীগ নারায়ণগঞ্জ শাখাকে অনুরোধ করেন।
অনুষ্ঠানের বিষয়ে বি.এম.এ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ দেবাশীষ সাহার সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনিও উক্ত অনুষ্ঠান সম্পর্কে কোন প্রকার অবহিত নন এবং তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
তিনি জানান, কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এবং মহাসচিব নির্বাচিত বি.এম.এ নারায়ণগঞ্জ শাখা কমিটিকে পাশ কাটিয়ে বি.এম.এ নির্বাচনে পরাজিত ও কিছু বিপথগামী চিকিৎসকের সাথে নিয়ে নারায়ণগঞ্জ এ অতিথি হিসেবে আসাতে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের ভাবমূর্তি সাংগঠনিকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে মনে করেন। তিনি সকলকে সুষ্ঠু ধারার রাজনীতিতে ফিরে আসার আহ্বান জানান এবং বিপথগামী চিকিৎসদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করার অনুরোধ জানান।
স্বাচিপ এবং বি.এম.এ নারায়ণগঞ্জ শাখার নেতৃবৃন্দ মনে করেন যে, জননেত্রী শেখ হাসিনা যেমন জুয়ার টাকায় তার নামে মিলাদ মাহফিল আয়োজনের নিষেধ করেছেন, তেমনি জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক মনোনীত কেন্দ্রীয় স্বাচিপ কমিটির অনুমোদিত, স্বাচিপ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা কমিটির সভাপতি ডাঃ ইকবাল বাহার ও সাধারণ সম্পাদক ডাঃ বিধান চন্দ্র পোদ্দার নেতৃত্বে পূর্ণাঙ্গ কমিটি থাকা সত্ত্বেও নারায়ণগঞ্জের বিপথগামী কিছু চিকিৎসক অবৈধভাবে স্বাচিপের পদ-পদবী ব্যবহার করায় জননেত্রী শেখ হাসিনার মর্যাদা হানি করেছে।
এমতাবস্থায় স্বাচিপ ও বি.এম.এ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা সংশ্লিষ্ট সকলকে দায়িত্বশীল আচরণ ও সংগঠনের সাংগঠনিক বিধি মেনে চলার আহবান জানান।

0