অপহরণের ৭২ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লা থেকে অপহৃত ৮ মাসের শিশু ৭২ ঘন্টার মধ্যে ঢাকার উত্তরা থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১১। এ সময় অপহরণের সাথে জড়িত এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

র‌্যাব-১১ এর আদমজীনগর কার্যালয় থেকে লেঃ কর্ণেল তানভীর মাহমুদ পাশার স্বাক্ষরিত এক বার্তায় বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সকালে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃত যুবক ময়মনসিংহ’র ভালুকা থানার মো. আকবর আলীর ছেলে জাকির হোসেন (৩৬)।

র‌্যাব জানান, ৯ জানুয়ারি ফতুল্লার মাসদাইর এলাকা হতে গার্মেন্টস কর্মী রুবেল ও রেখা দম্পতির ০৮ মাসের শিশুপুত্র জুবায়ের আহম্মেদ তাদের প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া ধারা অপহৃত হয়। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে ১০ জানুয়ারি ফতুল্লা থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে (যার মামলা নং-২৬)। এই ঘটনা জাতীয় ও স্থানীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ আকারে প্রকাশিত হয় যা ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনায় জড়িত আসামীদের গ্রেপ্তারে র‌্যাব-১১ এর একটি গোয়েন্দা দল ছায়া তদন্ত শুরু করে। গত ১২ জানুয়ারি র‌্যাব সদর দপ্তরের সহায়তায় র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকষ আভিযানিক দল ঢাকা জেলার উত্তরা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চাঞ্চল্যকর এই অপহরণ মামলার ভিকটিম ৮ মাসের শিশু জুবায়ের হাসানকে উদ্ধারসহ মামলার প্রধান আসামী অপহরণকারী জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।

প্রাথমিক অনুসন্ধান ও গ্রেপ্তারকৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে র‌্যাব জানান,, অপহরণকারী জাকির হোসেন (৩৬) ও তার স্ত্রী নাজমা খাতুন (৪০) ৪ মাস পূর্বে
ভিকটিমের বাসার পাশে নিজেদের আসল পরিচয় গোপন করে “জাহাঙ্গীর ও রোজিনা” ছদ্দনাম ব্যবহার করে একত্রে ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিল। তখন থেকেই জাকির ও
তার স্ত্রী নাজমা ভিকটিমসহ আসেপাশের শিশুদের অপহণের পরিকল্পনা করে আসছিল। তাই সে ও তার স্ত্রী পরিকল্পনা অনুযায়ী ভাড়াটিয়া অন্যান্য প্রতিবেশী পরিবারের সাথে সুসম্পর্ক
স্থাপন ও শিশুদের আদরের মাধ্যমে সকলের বিশ্বস্ততা অর্জনের চেষ্টা করে এবং অপহরণ করার সুযোগের অপেক্ষা করতে থাকে। এই বিশ্বস্ততার সূত্র ধরে গত ৯ জানুয়ারি রাত ৮টায় জাকির তাদের পাশের রুমের ভাড়াটিয়া শিশুটির মা রেখা বেগম (২২) এর কাছ থেকে তার ৮ মাসের শিশুপুত্র জুবায়ের আহম্মেদ’কে কোলে নেয়। এরপর সুযোগ বুঝে গ্রেপ্তারকৃত জাকির ও তার স্ত্রী কৌশলে শিশু জুবায়েরকে অপহরণ পূর্বক পালিয়ে যায়। এরপর রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টায় অপরহণকারী জাকির মোবাইল ফোনে ভিকটিমের পরিবারের নিকট বিভিন্ন ধরণের ভয়ভীতি প্রদর্শন পূর্বক মুক্তিপন দাবি করে। বারবার গ্রেফতারকৃত জাকিরের চাহিদা অনুযায়ি ভিকটিমের পরিবার মুক্তিপন পরিশোধ করলেও সে নতুন নতুন কৌশলে ভয়ভীতি প্রদর্শন পূর্বক আরো মুক্তিপন দাবি করে।

এ সময়ে গ্রেপ্তারকৃত জাকির শিশু জুবায়েরকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর ও সর্বশেষ ঢাকার বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপন করছিল। সর্বশেষ গত ১২ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে র‌্যাব সদর দপ্তরের সহায়তায় র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকষ আভিযানিক দল ঢাকা জেলার উত্তরা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চাঞ্চল্যকর এই অপহরণ মামলার ভিকটিম ৮ মাসের শিশু জুবায়ের আহম্মেদকে উদ্ধারসহ মামলার প্রধান আসামী অপহরণকারী জাকির হোসেন (৩৬) কে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। গ্রেপ্তারকৃত জাকিরের স্ত্রী মামলার অন্যতম আসামী নাজমা খাতুন গ্রেফতার এড়ানোর জন্য দেশের ভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে আছে।

তাকে গ্রেপ্তারের জন্য র‌্যাব-১১ সচেষ্ট রয়েছে।