অপহরনের ১৪ দিন পর গার্মেন্টসকর্মী উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার বিসিক শিল্প নগরী থেকে গার্মেন্টস নারী শ্রমিককে অপহরনের ১৪ দিন পর অপহৃত নারী শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়েছে এবং শামীম(২৬) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার(১০ মে) বিকেলে ফতুল্লার শাসনগাঁ এলাকা থেকে ওই নারী শ্রমিককে উদ্ধার ও শামীমকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে সোমবার (৯ মে) অপহৃতের বোন বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় অপহরনের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তাকৃত শামীম পাবনা জেলার চাট মোহর থানার মেছের আলীর ছেলে ও ফতুল্লা থানার শাসনগাঁয়ের শাহিনের বাড়ীর ভাড়াটিয়া।

মামলায় উল্লেখ্য করা হয়, বাদীর বোন বিসিক শিল্পনগরীস্থ ইউটো টেক্স নামক একটি পোষাক তৈরি কারখানায় কাজ করে আসছিলো। একই গার্মেন্টেসে কর্মরত শামীম(২২) নামক এক মুসলিম যুবক প্রতিনিয়ত তার বোন কে প্রেমের প্রস্তাব দেওয়া সহ নানা ভাবে উত্যক্ত করতো। বিষয়টি বাদীকে অবগত করা হলে এ নিয়ে বাদী একাধিকবার অভিযুক্ত শামীম কে উত্যক্ত করতে নিষেধ করে। গত মাসের ২৭ তারিখ সকাল পৌঁনে আটটার দিকে বাদীর বোন নিজ কর্মস্থল ইউরোটেক্সের সামনে পৌছামাত্র পূর্ব থেকে সিএনজি নিয়ে অপেক্ষামান শামীম বাদীর বোনের পথরোধ করে তাকে জোর পূর্বক সি,এন জিতে করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

অভিযুক্ত শামীমের পরিবার জানায়, অপহরন নয় একে অপরকে ভালোবেসে ঘর ছেড়েছিলো। ভালবাসার টানে মেয়েটি তার হিন্দু ধর্ম পরিবর্তন করে মুসলিম হয়েছে এবং তারা রোটারির মাধ্যমে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে। কিন্ত মেয়েটির পরিবার বিষয়টি মেনে নিতে অপারগতা প্রকাশ করে ফতুল্লা থানায় অপহরন মামলা দায়ের করেছে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানায়, অপহৃত গার্মেন্টস কর্মীর তরুনীর বোন অপহরনের মামলা দায়েরের পর মঙ্গলবার রাতে অপহৃতকে উদ্ধারসহ শামীম নামক এক যুবক কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।