অস্ত্র-মাদক পার্সেল: না.গঞ্জের সেই আলোচিত এসআই কারাগারে

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: অস্ত্র, গুলি ও মাদকসহ গ্রেফতার পুলিশের এসআই জলিল মাতবরকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গত রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুইদিনের রিমান্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

এর আগে, সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস অফিস থেকে বিভিন্ন ধরনের বিপুল পরিমাণ মাদক ও কয়েক ধরনের অস্ত্র-গুলি উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আবদুল জলিল মাতবরকে রাজধানী থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশের এসআই জলিল মাতব্বর কর্মরত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশে। নানা কারনে সে সময় আলোচিত ছিলেন তিনি। সম্প্রতি বদলি হন গোপালগঞ্জ জেলায়। সেখানে যোগদানও করেন তিনি। এক পর্যায়ে নারায়গঞ্জ থেকে নিজের ব্যবহৃত মালামাল একটি ট্রাঙ্কে ঢুকিয়ে সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসে পাঠানোর জন্য বুকিং দেন তিনি। সময় মতো সেগুলো পৌঁছে যায় গাবতলী সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস কার্যালয়ে। তবে বিপত্তি বাধে অ্যালকোহলের গন্ধে।

দারুস সালাম থানা পুলিশ জানায়, বিভিন্ন গন্তব্যে পাঠানোর জন্য প্রস্তুত করে রাখা পার্সেলের স্তূপ থেকে অ্যালকোহলের গন্ধ আসছে এমন তথ্য জানিয়ে তাদের ফোন করে সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ। সেখানে গিয়ে সেসব পরীক্ষা করে জানতে পারেন একটি ট্রাঙ্ক থেকে আসছে গন্ধ। সেটি ভেঙে ভেতরে পাওয়া যায় মদের বোতল। এই বোতল ভেঙেই ছড়িয়ে পড়ে গন্ধ। এছাড়া ৫০ পিস ইয়াবা, বিভিন্ন আগ্নেয়াস্ত্রের ৫৭ রাউন্ড গুলিও উদ্ধার করা হয় ট্রাঙ্ক।

বুকিংয়ের ঠিকানা ধরে খোঁজ করে জানা যায়, এগুলো এসআই জলিল মাতবরের। গ্রেফতার করা হয় তাকে। অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা করা হয় তার বিরেুদ্ধে। বুধবার আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করলে আদালত দুদিন রিমান্ড মঞ্জুর করে।

দারুস সালাম থানার এস আই নজরুল ইসলাম জানান, রিমান্ড শেষে আজ জলিল মাতবরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

0