আইভী একজন ব্যর্থ মেয়র প্রমানিত নগরবাসীর কাছে: এড. শাখাওয়াত

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সামনেই নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। নির্বাচনে মেয়র, কাউন্সিলর প্রাথীদের লড়াইয়ে সিটি জুড়েই রয়েছে একটি নির্বাচনি আমেজ। চলছে বর্তমান কাউন্সিলর-মেয়রদের কর্ম নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনা। ‘মেয়র উন্নয়নের নামে শুধু ট্যাক্স বৃদ্ধি করেছেন। বছরের পর বছর নানা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে নগরবাসীদের। বর্তমান মেয়র, নির্বাচনের পূর্বে যে ইশতিহার দিয়েছিলেন, তার কিছুই বাস্তবায়ন করা হয়নি। বরং তার উল্টো কাজ করেছেন।’ এমন মন্তব্য করেছেন সাবেক মেয়র প্রার্থীরা।

২০১৬ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বীতায় অংশগ্রহন করেছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)। সে নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রাথী হিসেবে লড়াই করেছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান। বর্তমান মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী একজন ব্যর্থ মেয়র প্রমানিত হয়েছেন নগরবাসীর কাছে, এমনটাই মন্তব্য করেছেন বিএনপির এই শীর্ষ নেতা।

এড. সাখাওয়াত হোসেন খান জানান, ২০১৬ নির্বাচনে আমি একটি ইশতিহারনামা তৈরী করেছিলাম, কিন্তু আমি নির্বাচনে জয়ী হতে পারিনি তাই সেটি কার্যকর করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু বর্তমান মেয়র যে ইশতিহার দিয়েছেন, তার কোনো কিছুই বাস্তবায়ণ করেনি। মেয়রের কিছু লোকজন আছে, যারা প্রচার করে মেয়র অনেক কাজ করছেন। বড় দাগে কোনো উন্নয়ণ হয়েছে বলে আমার মনে হয় না। সিটিতে কোন মেডিকেল কলেজ নাই, এগুলোর তার নির্বাচনের ইশতিহারে ছিলো। কিন্তু তিনি কিছুই করেনি। কদম রসূল ব্রীজ, নবীগঞ্জ ব্রীজ এগুলো কিছুই হয়নি। খুব অবর্ণনীয় দুঃখ নিয়ে নগরীর মানুষ নদী পারাপার হচ্ছে। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে নারায়ণগঞ্জের যে অবদান সে অনুযায়ী বাজেট সরকার থেকে আনতে ব্যর্থ হচ্ছে। আপনার দেখবেন, গত ৭বছর আগেও গাজিপুর সিটি কর্পোরেশনের বাজেট নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বাজেট থেকে কম ছিলো। কিন্তু এখন গাজিপুরের বাজেট ৩০ গুন বেড়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি বাজেটের চেয়ে।

তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জে যে জলবদ্ধতা আছে এবং ড্রেনেজ ব্যবস্থা- খুবই খারাপ। বাংলাদেশে বিভিন্ন শহরে দেখবেন, বাইপাস রাস্তাসহ বিভিন্ন রাস্তা করে দিছে। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে সে অনুযায়ী কিছুই নাই। নির্বাচনের সময় মেয়র বলেছিলেন- কোন ট্যাক্স বৃদ্ধি করবেন না। কিন্তু এখন দেখবেন ৫ বছর আগে তুলনায় দ্বিগুণ ট্যাক্স দিতে হচ্ছে। তাছাড়া রাস্তাঘাটে সব সময় জানযট থাকে। ধুলাবালির শহর নারায়ণগঞ্জ। নাগরিক সুবিধার মধ্যে শিক্ষা ব্যবস্থা আছে, কিন্তু এই সিটিতে তা খুবই দুর্বল।

বিএনপির এ নেতা বলেন, সিটি কর্পোরেশনের কোন নাগরিক অসুস্থ হলে, সিরিয়াস কিছু হলে তাকে ঢাকায় নিয়ে যেতে হয়।কোন কোন রোগী আছে ঢাকায় নেয়ার আগেই মৃত্যু বরণ করে। আবার দেখবেন- যারা মোটামোটি স্বচ্ছল, তাদের অধিকাংশ নারায়ণগঞ্জে শিক্ষা ব্যবস্থা ভালো না হওয়াতে ঢাকায় চলে যাচ্ছে।

0