আমরা কোনো মেয়রলীগ করতে চাই না: শাহ নিজাম

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম বলেছেন, বিভিন্ন সময় অনেকে পত্র পত্রিকায় বলেন, ভাই লীগের শ্লোগান দেয়া যাবে না। আমি বলি ভাইলীগ টা কি। অনেকে বলেন ভাই লীগটা হলো অনেকে সাংবাদিককে প্রশ্ন করা হয় তখন বলে ভাই লীগ হলো শামীমদের। তাহলে আমরা বলি হ্যাঁ আমরা সেই ভাই লীগ করি। যে ভাই লীগ আমাদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবিত হয়েছি। যে ভাই লীগের মাধ্যমে আমরা জাতির জনকের সুযোগ্য কণ্যা বাংলার প্রধানমন্ত্রী, বিশ্বে মনবতার মা, যিনি অক্রান্ত পরিশ্রম করে বাংলার টেনাফ থেকে তেতুঁলীয়া সমস্ত যায় উন্নয়নের ধারা সৃষ্টি করেছে। সে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আদর্শ সম্পর্কে আমরা যার কাছে অবগত হই, আমরা সেই ভাই লীগ করবো। 

আমরা কোনো মেয়রলীগ করতে চাই না। ইতিমধ্যে নারায়ণগঞ্জে একটি মেয়র লীগ করা হয়েছে। যে মেয়র লীগে থাকবে বাংলাদেশে জাতীয়তাবাদী দল, যে মেয়র লীগে থাকবে জামাত, যে মেয়র লীগে থাকবে কিছু সুশিল, যে মেয়র লীগে থাকবে কিছু বাম। তাদেরকে সমন্নয় করে একটি মেয়ল লীগের পায়তারা করা হচ্ছে। আজকে যারা বঙ্গবন্ধুর সৈনিক, আজকে যারা শ্রমিক, আজকে যারা শামীম ওসমানের সৈনিক, আজকে যারা এখানে শেখ হাসিনার সৈনিক। আমি আপনাদের বলতে চাই প্রস্তুত থাকেন। এই মেয়র লীগের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ করার জন্য আপনাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা করতে হবে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দ্বারা একটি সোনার নেতৃত্ব তৈরী করতে হবে।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য আব্দুল করিম বাবুর আয়োজনে আওয়ামী লীগের কর্মী সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি মানুষ সৃষ্টির সেরা আশরাফুল মাখলুকাত। আল্লাহ মানুষের মধ্যে একমাত্র বিবেক সৃষ্টি করেছেন। যে বিবেককে জাগ্রত করে সত্যকে সত্য বলবো এবং মিথ্যাকে মিথ্যা বলবো, যে বিবেককে জাগ্রত করতে পারলে আমরা সাদাকে সাদা বলবো আর কালোকে কালে বলবো, যে বিবেককে জাগ্রত করলে আমরা ভালোকে ভালো বলবো মন্দকে মন্দ বলবো। আর যদি আমাদের বিবেক জাগ্রত না হয় তাহলে আমাদের মধ্যে আর পশুর মধ্যে কোনো পার্থক্য থাকবে না। আজ এখানে যারা আছেন আমি চেষ্টা করবো আপনাদের বিবেককে জাগ্রত করার জন্য। আমরা যদি বিবেককে জাগ্রত করতে না পারি তাহলে আমরা সঠিক সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারবো না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের কাঙ্খিত লক্ষ্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত করার জন্য যে যুদ্ধ শুরু করেছি, বর্তমান আওয়ামী লীগে আমরা যে নেতৃত্ব দিচ্ছি তার সুফল আমরা বয়ে আনতে পারবো না। তাই আমি আপনাদের বলবো আপনারা বিবেককে জাগ্রত করেন, আগামী দিনের নেতৃত্ব আপনারা দিবেন।

শাহ নিজাম বলেন, আগামী দিনের নেতৃত্ব তার হাতেই দিতে হবে যার কাছে আপনার আমার ভাগ্যের পরিবর্তন হবে।  পরিবর্তন হবে নারায়নগঞ্জের সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা। আজকে একজন দ্বায়িত্ব দেয়া হয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের যিনি দুইবার পৌরসভার মেয়র ছিলেন, পরে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হয়েছেন। আপনার আমার ভাগ্যের কি পরিবর্তন হয়েছে? আমি যদি প্রশ্ন করি নারায়ণগঞ্জে কি উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থা করা হয়েছে? আমি জানি আপনি উত্তর দিবেন নারায়ণগঞ্জে উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হয়নি। আমি যদি প্রশ্ন করি নারায়ণগঞ্জে কি উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা চালু হয়েছে আপনারা সেখানেও বলবেন না। এই জিনিস গুলো পেতে হবে আপনার বিবেককে জাগ্রত করতে হবে। আনাদের এমন একজন নেতৃত্ব আনতে হবে। যে নেতৃত্ব শামীম ওসমানের মতো ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারবে। আজকে নারায়ণগঞ্জে এই লিংক রোড কে করেছে? শামীম ওসমান করেছে। বিশ্বে পরিচিতি করার জন্য খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়াম শামীম ওসমান করেছে। আপনারা আপনাদের ভাগ্যর পরিবর্তন করবেন করবেন ভোটের মাধ্যমে।

এ সময় উপস্তিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল (ভিপি বাদল), নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি চন্দন শীল, সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, এড. মাহমুদা মালা, নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়া সাজনু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. জুয়েল, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ, মহানগর কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জিল্লুর রহমান লিটন, ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য আব্দুল করিম বাবুসহ নেতৃবৃন্দ।
0