আলামত আত্মসাতের অভিযোগে রূপগঞ্জের ওসি প্রত্যাহার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মামলার আলামত তসরুপ করার অভিযোগে রূপগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল হককে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে জেলা পুলিশ সুপার মোঃ হারুনুর রশিদ (পিপিএম বার) এর নির্দেশে রূপগঞ্জ থানা থেকে তাকে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। তার পরিবর্তে স্থলাভিষিক্ত রূপগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত মাহমুদুল দায়িত্ব পালন করার নির্দেশ দেন। এ অভিযোগ ছাড়াও বহু দূর্নীতি অনিয়ম আর ঘুষ বানিজ্যর অভিযোগ রয়েছে ওসি মোহাম্মদ আব্দুল হকের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, গত বছরের ২২ মে র‌্যাব-১ এর একটি দলের সাথে বন্দুক যুদ্ধে আড়াইহাজার থানাধীন সাতগ্রাম ইউনিয়নের শিমুলতলীর দেবই এলাকায় গাজীপুরের টঙ্গী এলাকার আশরাফ খানের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী বাচ্চু খান নিহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব বাচ্চু খানের ব্যবহৃত নিশাত এক্সট্রেইল জিপগাড়ি ( ঢাকা মেট্রো-ঘ-১৮-০১১২)সহ ৯ হাজার ৮৩০পিস ইয়াবা, একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় পরের দিন র‌্যাব-১ এর অফিসার খালেদ হোসেন বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় মামলা দায়ের করেন এবং আলামতগুলো জব্দমূলে থানায় জমা দেন। পরবর্তিতে গত জুলাইয়ে বাচ্চু খানের মা ফুলেছা খাতুন গাড়ি আনতে আড়াইহাজার থানায় গেলে ওসি মোহাম্মদ আব্দুল হক তার কাছে ১০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করে। এদিকে ওসি আব্দুল হকের রূপগঞ্জে বদলি হয়ে যাবার পর ফুলেছা খাতুন আড়াইহাজার থানায় গিয়ে জানতে পারেন ওসি গাড়িটি সঙ্গে করে নিয়ে গেছেন। তিনি খোজ নিয়ে আরো জানতে পারেন গাড়িটি যে শো-রুম থেকে ক্রয় করেছেন একই শো-রুমের ভূয়া কাগজপত্র তৈরী করে তিনি আদালতে তার মামা শ্বশুর মোঃ মাসুদ রানাকে ভূয়া মালিক সাজিয়ে গত বছরের ২৪ জুলাই গাড়িটি নিজের করে নেন এবং বিআরটিএ এর কাছ থেকে রেজিষ্ট্রিশন করান। এ ঘটনায় চলতি বছরের ২৮ ফ্রেব্রুয়ারী ফুলেছা খাতুন বাদি হয়ে আমালত তসরুপ করার অভিযোগে ৪ জনকে আসামী করে ফতুল্লা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা প্রমানিত হওয়ায় মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় পুলিশ সুপার মোঃ হারুনুর রশিদ (পিপিএম বার) এর নির্দেশে রূপগঞ্জ থানা থেকে মোহাম্মদ আব্দুল হককে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। 
গত ডিসেম্বরে একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আড়াইহাজার থেকে রূপগঞ্জে বদলি হয় মোহাম্মদ আব্দুল হক। পরবর্তি মাত্র ২ মাসে সে অনিয়ম দূর্নীতি আর ঘুষ বানিজ্যের মচ্ছব শুরু করে। এ দুইমাসে রূপগঞ্জে আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি দেখা দেয়।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments