আলোচিত ‘সেই মামলায়’ পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যানের ছেলের জামিন

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের দায়ের করা মাদক ও গুলি উদ্ধার মামলায় পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল পর্যন্ত জামিন পেয়েছে পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এমএ হাশেমের ছেলে শওকত আজিজ রাসেল।
মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকালে জামিন আবেদন করে আদালতে উঠালে নারাযণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্টেট ফয়সাল আতিক বিন কাদের এর আদালত ৫ হাজার টাকার বন্ডে জামিন মঞ্জুর করেন।
জামিনপ্রাপ্ত আসামি শওকত আজিজ রাসেল হলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও গুলশান ক্লাবের প্রেসিডেন্ট। আর পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এমএ হাশেম’র ছেলে।
এর আগে, গত ৪ নভেম্বর হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গাড়ি থেকে মাদক ও গুলি উদ্ধারের ঘটনায় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দায়ের হওয়া মামলায় অন্তর্বতীকালীন জামিন দেওয়া হয় তাকে।
এ ব্যাপারে আসামি’র পক্ষের আইনজীবী এড. আবুল কালাম আজাদ বলেন, এই মামলায় শওকত আজিজ রাসেল হাইকোর্টের জামিনে ছিলেন। আজ হাইকোর্টের নির্দেশ মতে নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটে কোর্টে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আদালত ৫ হাজার টাকা বন্ডে পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল পর্যন্ত জামিন মঞ্জুর করেন।
প্রসঙ্গত, গত ১ নভেম্বর শওকত আজিজ রাসেলের বিলাসবহুল গাড়ি থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক ও গুলি উদ্ধারের দাবি করে পুলিশ। সেদিন গভীর রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) গাড়িটি আটক করে তল্লাশি করে এবং মাদক ও গুলি উদ্ধার করা হয় বলে জানানো হয়। পুলিশের দাবি ছিল- গাড়িটিতে ছিলেন শওকত আজিজ রাসেলের স্ত্রী ফারাহ রাসেল ও ছেলে আনাব আজিজ।
তবে পরবর্তীতে রাসেলদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আম্বর গ্রুপের মালিকানাধীন নিউজ বাংলাদেশে সে ঘটনার একটি ভিডিও আপলোড করে। যেখানে দেখানো হয়, ১ নভেম্বর রাতে রাজধানীর বাসা থেকে রাসেলের স্ত্রী ও ছেলেকে নারায়ণগঞ্জ ডিবি পুলিশের একটি টিম তুলে নিয়ে আসে। এটা প্রকাশের পরই ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। এরপর রোববার ৩ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জের এসপি হারুন অর রশিদকে বদলি করে তাকে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকার পুলিশ সদর দফতরের টিআর পদে সংযুক্ত করা হয়।

0