আড়াইহাজারে প্রেমের ফাঁদে ফেলে যুবতীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে এক যুবতীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছে ইয়ামিন (২৫)। এতে ওই যুবতী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।


পরে তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করায় বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন ওই যুবতীর বাবা।

জানা গেছে, আড়াইহাজার উপজেলার হাইজাদী ইউনিয়নের সেনদী মাধবদী গ্রামের ১৮ বছরের মেয়েটি বাবা-মায়ের সাথে রুপগঞ্জের তারাব এলাকায় বসবাস করে আসছিল। এই সুযোগে একই এলাকায় মিছির আলীর ছেলে ইয়ামিন ২৫ এর সাথে তার মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এই সুযোগে ঘুরাফেরা নাম করে প্রেমিক বিভিন্ন স্থানে প্রেমিকাকে নিয়ে একাধিক বার দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরে সেখান থেকে দুবছর পুর্বে গ্রামের বাড়ী উপজেলার হাইজাদী ইউনিয়নের সেনদী মাধবদী গ্রামে চলে আসে।

সবশের্ষ ২০ জুলাই রাতে প্রেমিক ইয়ামিন তার বাড়ী সেনদীতে এসে বাড়ীতে কেউ না থাকার সুবাধে আবারো ধর্ষণ করে। ওই দিন প্রেমিকার বাবা-মা চিকিৎসা জনিত কারনে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ছিলেন। বর্তমানে মেয়েটি দেড় মাসের অন্ত:স্বত্তা হয়ে পড়ে। বিয়ের জন্য চাপ দিলে প্রেমিক বিয়ে করতে অস্বীকার করেন। এই কারণে বৃহস্পতিবার থানায় মেয়ের বাবা সুরুজ মিয়া বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

আড়াইহাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনিচুর রহমান জানান, মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

0