আড়াইহাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, প্রায় ১৫ কোটি টাকার ক্ষতি  

0
লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আড়াইহাজারের জাহিন ম্পিনিং মিল লিঃ নামে একটি সুতা প্রস্তুকারী প্রতিষ্ঠানে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রায় ১৫ কোটি টাকার বিভিন্ন মালের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে মালিক পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে। মালিক পক্ষের অভিযোগ ছিল ফায়ার সার্ভিসের কয়েকটি ইউনিট দেরিতে ঘটনাস্থলে আসায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বেশী হয়েছে। বুধবার ( ১৯ জানুয়ারী) দিবাগত রাত ১টায় উপজেলার ঝাউগড়া এলাকায় এই অগ্নিকান্ডটি ঘটে।


এ সময় ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন, ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক (ডিএডি) তানহারুল ইসলাম, উপ-সহকারি পরিচালক (এডি) ছালাউদ্দিন, উপ-সহকারি পরিচালক (ডিডি) দেবাশীস ও আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম ।

আড়াইহাজার ফায়ার সার্ভিসের স্টেশনের কর্মকর্তারা জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। সময় মতো ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাত পৌনে ১টা থেকে বৃহম্পতিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন ইউনিটে থেমে থেমে আগুন জ¦লেছে। সাড়ে ১০টায় ফায়ার সার্ভিসের আগুন নেভানোর কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। খবর পেয়ে আড়াইহাজার, মাধবদী, সোনারগাও ও কাঞ্চন ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে নেয়। তদন্ত করে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সঠিক ভাবে নির্ণয় করা যাবে।

জাহিন ম্পিনিং মিলের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) শেখ আশাদুল্লাহ জানান, রাত পৌনে ১টার দিকে মিলের একাংশে হঠাৎ আগুন ছড়িয়ে পড়ে। কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই আগুন পুরো মিলে ছড়িয়ে পড়ে। এতে ব্লু-রুম মেশিনের ২টি ইউনিট, ১২ কাটিং মেশিন, ড্রইং মেশিন ৫টি, ফিনিশিন মেশিন ৫টি, সিম প্রেক্স -৬টি, এসি প্লান -২টি, গ্যাস জেনারেটর-১টি, আরএবি সাব টেশনের পুরো অংশ,-ফিনিশিং মেশিন- ৬টি, অটো কোন -৬টি, রিং-৫৯টি ফিনিশি গুদাম পুরো অংশ, রু-মেট্রিয়াস গুদাম পুরো অংশসহ অন্যান্য মাল পোড়ে গেছে।

জাহিন ম্পিনিং মিলের ম্যানেজিং ডিরেক্টোর (এমডি) মাহমুদর রহমান সুমন বলেন, রাত পৌনে ১টার দিকে মিলের একাংশে হঠ্যাৎ আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের কয়েকটি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে আসলেও কিছু ইউনিট দেরি করে আসে। এতে ক্ষতির পরিমাণ বেড়েছে। সেট সহ বিভিন্ন  মালের প্রায় ১৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের আড়াইহাজার স্টেশনের অফিসার শাহ-জাহান হোসেন বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা হয়েছে। আমাদের কোনো অবহেলা বা গাফিলতি ছিল না। দ্রুত সময়ের মধ্যে ঘটনাস্থলে আটটি ইউনিট পৌঁছে। তদন্ত করে ক্ষতির পরিমাণ সঠিক ভাবে নির্ণয় করা যাবে।

0