আড়াইহাজারে রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার

0

আড়াইহাজার করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে নবম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে রাস্তা থেকে জোর করে ধরে নিয়ে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষক লিটন(২৪)কে গ্রেফতার করেছে।

ধর্ষিতার পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের প্রভাকরদী এলাকার এক দরিদ্র কাঠ মিস্ত্রর কন্যা নবম শ্রেনীর ছাত্রী(১৪)। ১১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে রাস্তা দিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে একই এলাকার তোতা মিয়ার ছেলে লিটন মিয়া(২৪) ও মোঃ আলী মিয়ার ছেলে সাইফুল (২৫)তাকে জোর করে মুখে কাপড় চাপা দিয়ে পার্শ্ববর্তী মোবারক মিয়ার পরিত্যক্ত গরুর খামারে নিয়ে যায়। সেখানে সাইফুলের সহযোগিতায় লিটন মিয়া মেয়েটিকে ধর্ষণ করে তাকে ঘটনাস্থলে ফেলে চলে যায়। পরে মেয়েটি বাড়িতে গিয়ে তার পিতা-মাতাকে ঘটনাটি জানালে তারা ধর্ষক লিটন ও সহযোগি সাইফুলের পিতাকে জানান।

এ ঘটনায় স্থানীয় ভাবে সমাধান করে দিবে বলে একটি প্রভাবশালী মহল তালবাহানা করে। তারা ধর্ষিতাকে ২০হাজার টাকার বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপার প্রস্তাব করে বলে ধর্ষিতার মা জানান। পরে ধর্ষিতার মা ধর্ষক লিটন ও সহযোগি সাইফুলের বিরুদ্ধে রবিবার রাতে আড়াইহাজার থানায় ধর্ষণের লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ ধর্ষক লিটনকে গ্রেফতার করে।

এদিকে অভিযোগ করা হচ্ছে, প্রভাবশালী মহলটি থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই ফাইজুর রহমানের মাধ্যমে থানায় বিচারের মাধ্যমে আপোষ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

আড়াইহাজার থানার সেকেন্ড অফিসার ফাইজুর রহমান ধর্ষক লিটনকে গ্রেফতারের কথা স্বীকার করে জানান, বিবাদীদের এক ঘন্টা সময় দেওয়া হয়েছে যদি ধর্ষিতাকে বিয়ে করে তবেই লিটনকে ছাড়া যেতে পারে।

১৫২
0