এএসপি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত, থানা পুলিশকে অভয় দিলেন মেডিকেল অফিসার

0

নারায়ণগঞ্জে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই। জেলায় এ রোগে ৩জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এখন পর্যন্ত। সরকারী সঠিক হিসেব না থাকলেও অসমর্থীত সূত্রে এ যাবৎ প্রায় দেড় শত মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে।

আড়াইহাজারে এক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীসহ তিনজনের ডেঙ্গু আক্রান্তের খবরের পাশা পাশি নারায়ণগঞ্জ ‘গ’ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আফসার উদ্দিন ডেঙ্গু জ্বরে অসুস্থ্যতার খবর ওই থানায় কিছুটা আতংক তৈরী হয়েছে বলে জানা যায়। তবে, অভয় দিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার।

সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আফসার উদ্দিন রাজধানীর ধানমন্ডির সেন্ট্রাল হাসপাতালে সাতদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর বর্তমানে তিনি রূপগঞ্জ থানায় অবস্থান করছেন। তাই রূপগঞ্জ থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করাট স্বাভাবিক বলে জানান অনেকে।

থানা সূত্রে জানাযায়, গত সাতদিন আগে সহকারী পুলিশ সুপার আফসার উদ্দিন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য রাজধানীর ধানমন্ডির সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলে চিকিৎসাকরা তাকে রূপগঞ্জ থানায় তার নিজ কার্যালয়ে পাঠানোর অনুমতি দেন। বর্তমানে তিনি রূপগঞ্জ থানায় তার নিজ কার্যালয়ে অবস্থান করছেন। তাই রূপগঞ্জ থানার অন্যান্য কর্মকর্তাসহপুলিশ সদস্যদের মধ্যে ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে। অনেকেই সাধারণ সর্দি, জ্বর হলেই আতঙ্কে হাসপাতালে গিয়ে পরীক্ষা করছেন।

নাম প্রকাশ না শর্তে রূপগঞ্জ থানার এক পুলিশ সদস্য জানান, যেহেতু স্যার ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত, শতভাগ সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত স্যারের থানা ভবনে না থাকাই ভালো। তাতে করে আমরা ডেঙ্গু জ্বরে আতঙ্ক থেকে মুক্ত থাকবো।

রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ফয়সাল আহমেদ বলেন, ডেঙ্গু জ্বর কোনো ছোঁয়াচে রোগ নয়। এতে আক্রান্ত রোগীরা সবার সঙ্গে মিশতে পারবে। কাউকে এডিস মশা কামড় দিলে তবেই সে আক্রান্ত হবে। এজন্য সকলকে বাড়ি বা প্রতিষ্ঠানের আশপাশে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। আতঙ্কিত না হয়ে সকলকে ডেঙ্গু রোধে কাজ করতে হবে।

রূপগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, ডেঙ্গু জ্বরে আতঙ্কের কিছু নেই। চিকিৎসা নিলেই রোগীরা সুস্থ হয়ে উঠছে। সহকারী পুলিশ সুপার আফসার উদ্দিন স্যার চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আপাতত বিশ্রামে আছেন। তিনি মাঝে মাঝে অফিসে আসেন।

0