এখন মায়েরাও অনেক সচেতন: মেয়র আইভী

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, আমরা সিটি কর্পোরেশন সবসময় ভালো করে যাচ্ছি। যখন এটা পৌরসভা ছিল তখনও আমাদের অর্জন ছিল প্রায় ৯৯ শতকরা। আমি আশা করি এখনও তাই।


বুধবার (৩ নভেম্বর) সকালে নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে ইপিআই (সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি) ও পিএইচসি (প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা) সেবা জোরদার করার জন্য প্রমাণ ভিত্তিক পরিকল্পনা নিয়ে কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন। জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউ এইচ ও) বাংলাদেশ এর উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সার্বিক সহযোগিতায় ওই কর্মশালার আয়োজন করা হয়।  

মেয়র আইভী বলেন, এখন মায়েরাও অনেক সচেতন। বাচ্চাদের টিকা দেওয়ার জন্য এখন আমাদের ঘরে ঘরে গিয়ে বলতে হয় না যে আসুন। এটাকে আরো সচেতন করার জন্যে এবং আমাদের সেবাটাকে সহজ করার জন্য, মানে প্রত্যেকটা জনগণের বা জনগোষ্ঠির বা প্রান্তিক গোষ্ঠির দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমাদের যা করণীয় এখন আমাদের ওইভাবে ডিজাইন, ড্রইং যা বলেন ওই পরিকল্পনায় পৌঁছে দিতে হবে।

কর্মশালার বিষয়ে মেয়র আইভী বলেন, ট্রেনিং যত বেশি হবে মানুষ তত জানবে। কিন্তু এ ট্রেনিং হওয়ার পরে সেটা মাঠ পর্যায়ে ঠিক ভাবে হলো কিনা সেটাও আমাদের দেখার ব্যাপার আছে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা শেখ মোস্তফা আলী বলেন, ‘ইউনিসেফ ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের থেকে যারা আসছেন তাদের উদ্দেশ্য হলো নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকায় প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা ও ইপিআই সেবা যেটা দেওয়া হচ্ছে সেটাকে আরও কিভাবে সমৃদ্ধ করা যায় ও আরও ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে দেওয়া যায়। কারণ আমাদের লোকবল ও অর্থনৈতিক দিক থেকে সংকট রয়েছে। শহর অঞ্চলে সিটি করপোরেশন নিজেদের লোকবল নিয়োগ করতে হয়, নিজেদের অর্থ বিনিয়োগ করতে হয়। যেটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ। আর চ্যালেঞ্জ নিয়েই আমরা কিন্তু কাজটা করে যাচ্ছি দীর্ঘদিন ধরে। এখন এই চ্যালেঞ্জগুলো অতিক্রম করতে হলে যদি কোন সহযোগিতা লাগে সেটা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সহযোগিতা করুক। তারা যদি আমাদের সহযোগিতা করে তাহলে আমরা এ কাজটা আরো সুন্দর ভাবে করতে পারবো। সেই লক্ষ্যে আজকের ওয়ার্কশপে আমরা সমস্যাগুলো খুঁজে বের করবো, সেগুলো সমাধানের চেষ্টা করা, প্রয়োজনে ফান্ড সহ লোকবলের জন্য এখান থেকে প্রস্তাব দেওয়ার চেষ্টা করবো সমন্বয় করার। যেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন সুন্দর ভাবে প্রাথমিক সেবা ও ইপিআই সেবা দিতে পারি।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ইউনিসেফ কনসালটেন্ট ডা. ফারহানা রহমানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইপিআই পোগ্রাম ম্যানেজার ডা. মাওলা বক্স চৌধুরী, নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. মুহাম্মদ ইমতিয়াজ, ইপিআই ডেপুটি পোগ্রাম ম্যানেজার ডা. তানভীর আহমেদ, ইউনিসেফ বাংলাদেশ এর কনসালটেন্ট গন ও ইপিআই হেড কোয়াটার হতে বিশেষ ৫জন সহ সিটি করপোরেশনের তিনটি অঞ্চলের স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।