কচুড়িপানা নিয়ে আওয়ামীলীগ-বিএনপির সংঘর্ষ, আহত ৩০

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মেঘনা নদীতে ভেসে আসা কচুড়িপানাকে বেড় দিয়ে আটকানোকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৩০ ব্যক্তি আহত হয়েছে।

সোমবার (১৮ মে) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার দুর্গম কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের কদমীরচর এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

জানাগেছে, মেঘনা নদীতে ভেসে আসা কচুড়িপানা নদীর পাশে আটকিয়ে মেঘনা নদীতে মাছ ধরে থাকে স্থানীয় লোকজন। সোমবার সকালে মেঘনা নদী দিয়ে ভেসে আসা কচুড়িপানার দখল নিয়ে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা আসকর আলী ও বিএনপি নেতা কাজেম আলী নিজেদের মধ্যে তর্কে লিপ্ত হয়। পরে তাদের মধ্যে হাতা-হাতি শুরু হয়। এ খবর তাদের বাড়িতে দেওয়া হলে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় ধারালো অস্ত্র ও টেটা,বল্লম নিয়ে একে অপরের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। এতে করে উভয় পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। মারাত্মক আহতরা হল-কাজেম আলী,বাদশা মিয়া,কবির হোসেন,আলাউদ্দিন,জজ মিয়া,কিরিচ মিয়া,স্বপন মিয়া,জান্নাত,নারগিছ আক্তার,রিজিয়া বেগম,বাচ্চু মিয়া,বিল্লাল হোসেন,হযরত আলীর স্ত্রী,নুরুল ইসলাম,দুলাল,আসকর আলী,ছবি বেগম,ডালিম ও হবি মিয়া। আহতদের আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স,সোনারগা ও ঢাকায় বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকীদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

বিএনপিনেতা কাজেম আলী জানান, সব সময় তারা নির্দিষ্ট স্থানে কচুড়িপানা আটকিয়ে থাকে। এ দিনও সেই স্থানেই বাঁশ দিয়ে কাজ করছিল। এ সময় আসকর আলী ও তার লোকজন অতর্কিতে তাদের লোকজনদের উপর হামলা চালিয়ে আহত করেছে।

অপরদিকে আওয়ামীলীগ নেতা আসকর আলী জানান, তাদের লোকজন কচুড়িপানা আটকানোর সময় কাজেম আলীর লোকজন তাতে বাঁধা দেয় এবং তার লোকদের উপর হামলা চালায়।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে কালাপাহাড়িয়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

 

 

 

 

এলএন/এম/এমএ/০৫১৮-০২

0