কথা কাটাকাটি থে‌কে পুতা দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী গ্রেফতার

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বর্তমান যুগে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথায় কাটাকাটি, খুনসুটি যেন নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। কিন্তু, এ কথায় কাটাকাটি যদি রূপ নেয় কারো মৃত্যুতে তবে তা হয়ে উঠে শুধু সেই দুজনের জন্য নয় বরং পুরো পরিবার এবং সমাজের জন্য এক ভয়ঙ্কর বার্তা। স্বামী-স্ত্রী এরকমই হৃদয়বিদারক ঘটনা ঘটেছে নারায়ণগঞ্জে আর তা হলো, পাথরের পাটা-পুতার পুতা দিয়ে স্ত্রীকে মাথায় আঘাত করে হত্যা করেছেন স্বামী। পরবর্তীতে ভাগিনাকে সাথে নিয়ে দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেন নিহতের ভাই।

১৯মে (মঙ্গলবার) ফতুল্লার ভোলাইল গেদ্দার বাজার এলাকায় এমনই ঘটনা ঘটে।

গেদ্দার বাজারের আউলাদের টিনশেড বিল্ডিংয়ের পশ্চিম পার্শ্বের ভাড়াটিয়া মিজানুর রহমান মজুমদার(৫২), তার স্ত্রী সুলতানা বেগম(৪২)। মিজানুর-সুলতানার দাম্পত্য জীবনে রয়েছে ১৮বছরের বাদল নামের এক পুত্র সন্তান। মিজানুর বাড়িতে থাকলেও সুলতানা ক্রোনী গ্রুপে এবং বাদল চাকরি করতো গেদ্দার বাজার ডাইংয়ে। পারিবারিক বিষয় নিয়ে প্রায়ই জগড়া হতো মিজানুর-সুলতানার মধ্যে। এরই অংশ হিসেবে ১৯মে (মঙ্গলবার) ও তাদের মধ্যে জগড়া হয়। সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে তাদের বাসার রুমেই কথা কাটাকাটি হয়। কথায় কাটাকাটির সময় মিজানুর ক্ষিপ্ত হয়ে সুলতানাকে সুকেসের সাথে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এক পর্যায়ে মিজানুর পাথরের পাটা-পুতার পুতা দিয়ে সুলতানার মাথা আঘাত করলে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হন সুলতানা। তখনই তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। বিষয়টি স্থানীয়রা বুঝতে পারলে তারা এসে সুলতানাকে উদ্ধার করে এবং নারায়ণগঞ্জ ১০০শয্যা হাসপাতালে(ভিক্টোরিয়া) নিয়ে যায়। ভিক্টোরিয়া হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে(ঢামেক) রেফার করলে পথেই মৃত্যু হয় সুলতানার। মামলার এজাহার সূত্রে সুলতানার ভাই ফতুল্লা সাইনবোর্ড এলাকার সাহেব পাড়া মান্নান সাহেবের বাড়ির ভাড়াটিয়া মো.সফিকুল ইসলাম(৪৯) এ কথা জানান।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহাদাত হোসেন জানান, এ ঘটনায় লাশ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে এবং আসামী মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে কোর্টে চালান করা হয়েছে।

 

 

এলএন/এইচএস/০৫১৯-১৬

0