করোনা আতঙ্কে না.গঞ্জ শহরে মাস্ক সংকট

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: চীনে মহামারী আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাস, বর্তমান সময়ের আতঙ্ক। ‘করোনা ভাইরাসে’ এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে ৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। ইতোমধ্যে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে প্রায় পাঁচশ জন। এর মধ্যে চীনের বাইরে মারা গেছে মাত্র দুজন। নতুনভাবে আক্রান্ত হচ্ছে শত শত রোগী।

বাইরে বের হলেই মুখে মাস্ক পরে বের হওয়ার জন্য বলা হয়েছে। ফলে সকল শ্রেণিপেশার মানুষ ভাইরাস থেকে বাঁচতে মাস্ক ব্যবহার করছে।

যদিও, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় মাস্কের দরকার নেই বলছে মার্কিন বিজ্ঞানীরা।

সেই মাস্ক কিনতে অনেকেই ভিড় করছে ফার্মেসী দোকান গুলোতে। কিন্তু মিলছে না মাস্ক। দোকানীরা বলছেন, তাদের স্টকের সব মাস্কই শেষ হয়ে গিয়েছে।

মাস্ক কিনতে আসা এক ক্রেতা গতকাল রাতে চাষাঢ়া’র সবগুলো ফার্মেসী খুঁজে মাস্ক না পেয়ে হতাশ হন। লাইভ নারায়ণগঞ্জকে তিনি জানান, তার পরিবারের সকল সদস্যর নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে মাস্ক কিনতে এসেছেন তিনি। বর্তমানে ‘করোনা ভাইরাস’ থেকে বাঁচতে মাস্কের বিকল্প নেই বলেও ভাবছেন তিনি। চাষাঢ়া ল্যাবএইড রোড এবং বঙ্গবন্ধু সড়কের ফার্মেসীগুলো ঘুরে কোন দোকানেই মাস্কের সন্ধান পাননি তিনি।

বিশেষজ্ঞ এলি পেরেনসেভিচ বলেন, যারা গড়পড়তা সুস্থ আছেন তাদের মাস্কের দরকার নেই, মাস্ক পরা উচিত নয়। সুস্থ মানুষ মাস্ক পরার পর করোনা থেকে রক্ষা পাবেন; এমন কোনও প্রমাণ নেই। তারা এই মাস্ক ভুলভাবে পরছেন। আর এতে বরং সংক্রমণের ঝুঁকি আরও বেশি বাড়ছে। কারণ তারা মাস্ক পরার পর বারবার মুখ স্পর্শ করছেন। শুধুমাত্র অসুস্থ হলেই মাস্ক পরুন, অন্যথায় নয়।

0