কাউন্সিলর বিভা’র প্রতিদ্বন্দ্বি সাংবাদিক প্রীতি!

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিগত দুটি নির্বাচনে শক্ত কোন প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় সহজেই নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন’র ১৬, ১৭ ও ১৮নং ওয়ার্ড এর সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন আফসানা আফরোজ বিভা হাসান। শুধু তাই নয়, সৌভাগ্য বশত বর্তমানে তিনি প্যানেল মেয়রের দায়িত্বও পালন করছেন। তবে আসন্ন নির্বাচনে দেশ বিদেশে আলোচিত স্বনামধন্য সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী সোনিয়া দেওয়ান প্রীতি একই ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করার ঘোষণায় বিভার কপাল পুড়তে পারে বলে আশংকা করছেন অনেকে।

রবিবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধার পর সাংবাদিক সোনিয়া দেওয়ান প্রীতি নিজের ফেসবুক আইডিতে পোস্ট দিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন তথা নাসিক ১৬, ১৭ ও ১৮নং ওয়ার্ড থেকে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচন করবেন বলে ঘোষণা দেন।

এদিকে, মুহূর্তেই সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। ফলে পরদিন সোমবার ওই ওয়ার্ডের মানুষের মাঝে যেন এটি ছিল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু। সর্বস্তরের এই আলোচনা থেকে আসছে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মধ্য দিয়ে বর্তমান কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র বিভা হাসানের কপাল পুড়তে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন অনেকে।

এমন আশংকার কারণ হিসেবে স্থানীয়রা জানান, বিভা হাসানের স্বামী হাসান আহাম্মেদ যে একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী সেটি কারো অজানা নয়। শুধু তাই নয়, বিএনপি নেতা হওয়া সত্বেও বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেও এই হাসান এখনো দেওভোগ ও পাইকপাড়া এলাকায় বিশাল সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ন্ত্রণ করছেন। তার নিয়ন্ত্রিত এই সন্ত্রাসী বাহিনী খুন, ধর্ষণ থেকে শুরু করে এমন কোন খারাপ কাজ নাই যা তারা করে না। তার বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকার সাধারণ জনগন। যে কারণে আসছে নির্বাচনে বিভার বিজয়ের ক্ষেত্রে অন্যতম বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারে এ বিষয়টি। তার উপর দেশব্যাপী সাধারণ মানুষের সেবায় নিবেদিত মানবিক গুণাবলির অধিকারিণী স্বনামধন্য সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী সোনিয়া দেওয়ান প্রীতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণায় বিভার জয়ে আরও বড় বাঁধা দেখছেন তারা।