কাশিপুরে ভন্ড কবিরাজের কান্ড, চিকিৎসার নামে তরুণী ধর্ষণ

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ২২ বছরের মানসিক প্রতিবন্ধী তরুণীকে চিকিৎসার দেয়া হবে। তাই ঘরের সবাইকে বের করে দেয়ায়। এর পর কৌশলে ওই তরুনীকে ধর্ষণ করে চিকিৎসক (কবিরাজ)। এমন অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার হয়েছে। পুলিশ বলছে সে এক ভন্ড কবিরাজ।

বুধবার (২৭ মে) রাতে ফতুল্লার কাশিপুর এলাকা থেকে ওই ভন্ড কবিরাজকে আটক করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।

আটককৃত ভন্ড কবিরাজ কাশিপুর হাজিপাড়া শাহজাহান হাজীর বাড়ীর ভাড়াটিয়া ও শফিউদ্দিন প্রামাণিকের ছেলে আব্দুর রহিম প্রামানিক (৫৮)।

জানা যায়, ভন্ড কবিরাজ একই এলাকার ২২ বছরের মানসিক প্রতিবন্ধী অবিবাহিত মেয়ের চিকিৎসা করার ছলনায় ২৭ মে রাত ১০টার দিকে, মেয়েটির পিতার বাড়ীর শয়ন কক্ষে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। পরে পরিবারের লোকজন বিষয়টি বুঝতে পেরে ধর্ষক ভন্ড কবিরাজকে আটক করে রাখে।

পুলিশকে খবর দিলে ঘটনার সত্যতা প্রমান হওয়ায়, মেয়েটির পিতার লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম হোসেন জানান, মেয়েটি অসুস্থ্য ছিল। ভন্ড কবিরাজ রহিম প্রামানিকের পরামর্শে মেয়েটির পিতা চিকিৎসা করার আহ্বান করে। ২৭ মে রাতে মেয়েটির পিতার বাড়ীর শয়ন কক্ষ থেকে সকলকে বের করে দিয়ে কৌশলে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় মামলা গ্রহণ করা হয়েছে।

 

এলএন/জিআর/০৫২৮-০৪

0