কিশোর গ্যাং হামলার ভিডিও ভাইরাল, এক যুবক আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দেশীয় তৈরী অস্ত্র- সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কিশোর গ্যাং সদস্যদের হামলার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার ঘটনায় এক যুবককে আটক করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। শনিবার (১৪ মে) রাতে শহরের সিটি কর্পোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ডের নন্দীপাড়া থেকে তাকে আটক করা হয়।

এর আগে হামলার শিকার ফতুল্লা থানার দেওভোগ পানির ট্যাংকি এলাকার মো. তাইজুল ইসলামের ছেলে মিরাজুল ইসলাম দিপু বাদী হয়ে শনিবার সন্ধ্যায় ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামীরা হলেন জেলার সদর থানার নন্দিপাড়ার অভি(২০), শামীম (১৮), নোয়াস (২২), সিয়াম ওরফে ভেরা সিয়াম(১৯), তুহিন (২২), পিতা- অজ্ঞাত, আশিক(১৮), রাজু (২২), মেরাজ (১৯) সহ অজ্ঞাতনামা আরো৭/৮ জন।

এদের মধ্যে আটককৃত যুবকের নাম, নোয়াস (২২)।

মামলায় উল্লেখ্য করা হয়েছে যে, বুধবার(১১ মে) দুপুর আড়াইটার দিকে অভিযুক্ত আসামীরা দেশীয় তৈরী অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ফতুল্লা থানা সীমান্তের দেওভোগ পানির ট্যাংকি এলাকাস্থ রাস্তার পাশের বাসা বাড়ী ও দোকান পাটের শাটারে এলোপাতাড়ী ভাবে কোপাতে থাকে। এমতাবস্থায় বাদী হামলাকারীদের বাধা প্রদান করলে তাকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। বাদী কে রক্ষার্থে তার ভাই খোকন ও নিকটাত্নীয় শামীম এগিয়ে এলে তাদের কে ও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। হামলাকারীর বাদীর নিকট থেকে ২ হাজার ৭৫০ টাকা ছিনাইয়া নিয়ে যায়। এ সময় আহতরা আত্ন-রক্ষার্থে ডাক চিৎকার করলে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তরিকুল ইসলাম জানায়, গত দুদিন পূর্বে একটি বাহিনীর হামলার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। সেই হামলার ঘটনা মামলা হয়েছে। হামলা ও মামলার সাথে জড়িত এক সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে। বাকীদেরকেও গ্রেপ্তার করার চেস্টা করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।