কুমারী পূজা উদ্যাপিত

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মহাষ্টমীর দিন কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আর মাত্র ২ দিন পরেই মর্ত্য ছেড়ে কৈলাসে ফিরে যাবেন দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গা। পেছনে ফেলে যাবেন ভক্তদের চার দিনের আনন্দ-উল্লাস আর বিজয়ার অশ্রু।

আজ রোববার ছিল মহাষ্টমী। চাষাঢ়ার রামকৃষ্ণ মিশনে অনুষ্ঠিত হয় পূজার আকর্ষণীয় পর্ব ‘কুমারী পূজা’। মাতৃভাবে কুমারী কন্যাকে জীবন্ত প্রতিমা কল্পনা করে জগজ্জননীর উদ্দেশে শ্রদ্ধা নিবেদন করাই কুমারী পূজা। এবারের ‘কুমারী’ মায়ের নাম ঐশী চক্রবর্তী । শাস্ত্রমতে, এদিন তার নামকরণ করা হয় ‘অপরাজিতা’। ভক্তদের মতে, এটি একাধারে ঈশ্বরের উপাসনা, মানববন্দনা আর নারীর মর্যাদার প্রতিষ্ঠা। নারীর সম্মান, মানুষের সম্মান আর ঈশ্বর আরাধনাই কুমারী পূজার অন্তর্নিহিত শিক্ষা।

সকালে রামকৃষ্ণ মিশনে জনসমুদ্র:
মিষ্টি রোদের সকাল। চাষাঢ়া থেকে নবাব সলিমুল্লা রাস্তায় ঢুকতেই ঢাকঢোলের আওয়াজ শোনা যাচ্ছিল। বিরামহীন ঢোলের আওয়াজের সঙ্গে থেমে থেমে বেজে উঠছে ঘণ্টা আর কাঁসার শব্দ আর নানা বয়সের নারীদের ভক্তিভরা উলুধ্বনি। এরই মাঝে কোলে চড়ে মণ্ডপে অধিষ্ঠিত হলেন ‘কুমারী মা’। হাজারো ভক্ত জয়ধ্বনি দিয়ে বরণ করে নেন ‘কুমারী মা’ ঐশী চক্রবর্তীকে। টুকটুকে লাল শাড়ি পরে আসা কুমারী মায়ের চোখে-মুখে ভীতিমিশ্রিত আনন্দের ছাপ। চারদিকে তখন অগণিত মানুষের ভিড়। কুমারী মা আসনে আসার পর পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

১৬টি উপকরণ দিয়ে পূজার কাজ শুরু হয়। এর মধ্যে অগ্নি, জল, বস্ত্র, পুষ্প ও বাতাসা এ পাঁচ উপকরণ দেওয়া হয়েছে কুমারী মায়ের পূজায়। এগুলো দেওয়ার পর দেবীর গলায় পুষ্পমাল্য পরানো হয়। পূজা শেষে পূজার্থী ও দর্শনার্থীদের মধ্যে প্রসাদ বিতরণ করা হয়।

রামকৃষ্ণ মিশনের প্রধান তিলক মহারাজ বলেন, প্রতিটি মেয়ের মধ্যে মা বিরাজমান। সেটা জেনে কুমারীপূজা করা হয়। কুমারীপূজায় প্রায় ২০ হাজার লোকের সমগম হয় আর এজন্য পুলিশ প্রশাসন থেকে সবধরনের সহযোগিতা দেওয়া হয়েছে।

কাল মহানবমী, পরশু শেষ দুর্গাপূজা:

শারদীয় দুর্গোৎসবের চতুর্থ দিনে আগামীকাল মহানবমী। নানা আচারের মধ্য দিয়ে মহানবমীর পূজা শেষে যথারীতি থাকবে অঞ্জলি নিবেদন ও প্রসাদ বিতরণ। চন্দ্রের নবমী তিথিতে সারা জেলায় অনুষ্ঠিত হবে মহানবমী পূজা। শাস্ত্র অনুযায়ী, শাপলা, শালুক ও বলিদানের মাধ্যমে দেবীর পূজা হবে। মূলত আজই পূজার শেষ দিন। তবে বিজয়া দশমীর দিনেও বেশ কিছু আনুষ্ঠানিকতা থাকে। মঙ্গলবার বিজয়া দশমীতে দুর্গা দেবীর দশমী বিহিত পূজা সমাপন ও বিসর্জন অনুষ্ঠিত হবে।

0