ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে এক পরিবারের ১০ জন আহত

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বাংলাদেশে ক্রিকেট মানেই আনন্দ, উল্লাস আর হৈ হুল্লোর। কিন্তু সোনারগাঁয়ের একটি পরিবারে সেই আনন্দ উল্লাসই পরিনত হয়েছে বিশাদে। শিশু থেকে বৃদ্ধ, কেউ নেই এ বিশাদের ছায়ার বাহিরে।

বুধবার (১৭ জুলাই) রাতে উপজেলার নুনেরটেক পশ্চিমপাড়া গ্রামে এমনটাই ঘটেছে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে। একই পরিবারের ১০ সদস্যকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে প্রতিপক্ষরা।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী জানান, গ্রামটির আমির আলীর পরিবারের সঙ্গে প্রতিবেশী আব্দুল আজিজের পরিবারের দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। আমির আলীর ছেলে ওয়াছকুরনী ইসলাম ক্রিকেট খেলার সময় তার বল আজিজের বাড়িতে চলে যায়। এতে আব্দুল আজিজ ক্ষিপ্ত হয়ে সাইদুল ইসলামকে মারধর করেন।

পরে আমির আলী তার ছেলেকে মারধরের ঘটনায় স্থানীয় মাতব্বরের কাছে বিচার চাওয়ায় আব্দুল আজিজের নেতৃত্বে খান বাহাদুর, মাজহারুল ইসলাম, করিম আলী, মনির হোসেন, মোসলেম মিয়া, মেহেদী হাসান, আবুল হোসেন, আলী আকবর, মোক্তার হোসেনসহ ২০-২৫ জনের একটি দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমির আলীর পরিবারের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় একই পরিবারের হালিমুন, আমির আলী, সাইদুল ইসলাম, ওয়াছকুরনী, বাহাউদ্দিন, সালাউদ্দিন, শিশু জান্নাত, সমলা বেগম, দিল মোহাম্মদ ও শাহারুন মারাত্মক আহত হন। আমির আলীর বাড়ির ১০ সদস্যকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করার পর তাদের বাড়িঘর ভাঙচুর, নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটপাট করে প্রতিপক্ষ।

এদিকে আহতদের হাসপাতালে নেওয়ার সময় নদীর মাঝপথে নৌকায় আব্দুল আজিজের লোকজন আবারো হামলা চালায়। আহতদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আমির আলী বাদী হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

আহত আমির আলী বলেন, ‘তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজিজের নেতৃত্বে আমাদের পরিবারের ১০ জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করেছে।’

অন্যদিকে আব্দুল আজিজ বলেন, ‘আমাদের পক্ষের লোকজনও কিছু আহত হয়েছে।’

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

0