খেলা দিয়েই শুরু হয় আমার রাজনীতি জীবন: শামীম ওসমান

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: পরিচয় দিতে আমার বাবার নিষেধ ছিল। তখন তোলারাম কলেজে প্রথম বর্ষ পার হয়ে গেছে। তাই কেউ জানতোই না আমি একেএম শামসুজ্জোহার ছেলে। আমাকে কেউ চিনতো না। যখন আমি টেবিল টেনিস চ্যাম্পিয়ান, ব্যাটমিন্টন চ্যাম্পিয়ান হলাম তখন সবাই জিজ্ঞাস করলো, এই লম্বুটা কে? এরপর আমাকে চিনতে শুরু করলো। খেলাধুলা দিয়েই শুরু হয়ে গেলো আমার রাজনীতি জীবন।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ইসদাইরের ওসমানী পৌর স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচের উদ্বোধনীতে এ সব কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান।

শামীম ওসমান বলেন, খেলা হচ্ছে অ্যাম্বাসেডর। যারা বাংলাদেশের নাম জানতো না, এই ক্রিকেটের কারণে আজ সারা বিশ্ব বাংলাদেশকে চিনে এবং শ্রদ্ধার সাথে দেখে। লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলায়ও আমাদের এগিয়ে থাকতে হবে। সেই কারণে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ। এই টুর্নামেন্টের লক্ষ্য হলো- একদম তৃণমূল পর্যায়ে যারা সুযোগ পায় না সেই মেধাগুলোকে জাতীয় পর্যায়ে তুলে নিয়ে আসা। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মাথা উচু করে দাঁড়ানো। যেভাবে আমরা ক্রিকেটে দাঁড়িয়েছি। আশা করি, আগামী দিনে ফুটবল ও অন্যান্য খেলায়ও দাড়াবো।

সাংসদ বলেন, আমরা একটা সুন্দর খেলা দেখতে চাই। কে হারে কে জিতে সেটা আপনারা, শওকত ভাই, বাদল ভাই আছে তারা সিদ্ধান্ত নিক। দরকার হলে তাদের মধ্যেও কিছু হোক তাতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।

সদর ইউএনও নাহিদা বারিককে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ছোট একটি অনুষ্ঠান কিন্তু প্রত্যেকটা ক্ষেত্রেই এখানে রুচির প্রমাণ পাওয়া গেছে। এই রুচির প্রমাণ তখনই পাওয়া যায় যখন সরকারি কর্মকর্তা রুচিবান হন। তার উদ্যোগ যদি থাকে তখনই এই অনুষ্ঠানগুলি এমন জমজমাটভাবে উদযাপিত হয়। বন্ধু চন্দন ও রনি সেভাবে একদিনের মধ্যে থিম মিউজিক তৈরি করে উপস্থাপন করলো। এতে উপস্থিত সবাই উৎসাহিত হয়েছে, আমি নিজেও উৎসাহিত হয়েছি।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিকের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন কাশীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম সাইফুল্লাহ বাদল, বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম শওকত আলী, সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ সভাপতি ইব্রাহীম চেঙ্গিস প্রমুখ৷

0