গন্ধর্বপুর আটানী সমাজের কবরস্থান নিয়ে ওয়াসার সাথে সমঝোতা

0

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : ঢাকা এনভায়রনমেন্টালি সাসটেইনেবল ওয়াটার সাপ্লাই প্রকল্পের অধীনে রূপগঞ্জের গন্ধর্বপুর ঢাকা ওয়াসার নির্মাণাধীন দৈনিক ৫০ কোটি লিটার পানি শোধনাগার নির্মাণে আটানী সমাজের কবরস্থানের জমি সংক্রান্ত বিরোধের বিষয়ে সমঝোতা হয়েছে।

সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেছেন তারাব পৌরসভার মেয়র হাছিনা গাজী, আটানী সমাজের কবরস্থান কমিটির সভাপতি শাহিনুল কবির শাহীন, মসজিদ কমিটির সেক্রেটারি এড. মোহাম্মদ তারেক, মসজিদ কমিটির সভাপতি নূর এ আলম, কবরস্থান কমিটির সেক্রেটারি আওলাদ হোসেন। এছাড়াও সমাজের পক্ষে সাক্ষী ছিলেন, হাবিবুর রহমান, তারাবো পৌরসভার সিওও মোঃ নজরুল ইসলাম, আবু জাফর, মো.সালেহ, মো. মিয়াজুদ্দিন ভূঁইয়া, আমিনুল হক।

আর ঢাকা ওয়াসার পক্ষে স্বাক্ষর করেছেন, নির্বাহী প্রকৌশলী আল-আমিন, মোঃ বাহারুল ইসলাম, প্রকল্প পরিচালক মোঃ মাহমুদুল ইসলাম। ওয়াসার পক্ষে সাক্ষী ছিলেন, তোফাজ্জল হোসেন, আশরাফ আলী, লুৎফর রহমান।

সোমবার বিকালে তারাবো পৌরসভা কার্যালয়ে সমঝোতার নথিপত্র প্রথমে মেয়র হাছিয়া গাজীর কাছে দেয়া হয় পরে হাছিনা গাজী তা ঢাকা ওয়াসা ও গন্ধর্বপুর আটানী সমাজের কর্তৃপক্ষের কাছে বুঝিয়ে দেয়।

কবরস্থান বিষয়ক জটিলতার কারণে এক পর্যায়ে পানি শোধনাগার নির্মাণ কাজ বন্ধ হয়ে যায়। এলাকাবাসী, কবরস্থান কমিটি, মসজিদ কমিটি ও সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষ জনস্বার্থে পানি শোধনাগার নিমার্ণ কাজ পুনরায় চালুর জন্য ঐক্যমত হয়েছে। সমঝোতা সাক্ষর মোতাবেক কবরস্থানের উত্তর পাশের কিছু অংশ প্রকল্পের স্বার্থে আটানী সমাজবাসী ছেড়ে দিতে সম্মত হয়েছেন এবং ঐ অংশের সমপরিমাণ ভূমি কবরস্থানের পশ্চিম ও পূর্ব পাশে সমন্বয় করা হবে। উত্তর অংশের কবরগুলো সরিয়ে কবরস্থানের পূর্ব ও পশ্চিম অংশে প্রতিস্থাপন করা হবে ধর্মীয় রীতিনীতি অনুসরণ করে। উক্ত অনুষ্ঠানে আটানী সমাজের গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

0