গুজবে কান দিবেন না, আইন হাতে তুলে নিবেন না: এসপি হারুন

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘একটি গোষ্ঠী এই ছেলে ধরাকে কেন্দ্র করে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করছে। তাই গুজবে কান দিবেন না। আইন নিজের হাতে তুলে নিবেন না। আপনারা কাউকে সন্দেহ করলে পুলিশকে জানাবেন।’

রোববার (১ জুলাই) দুপুরে বর্তমান ‘ছেলে ধরা’ গুজব ছড়ানোকে কেন্দ্র করে এক ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ এসব কথা বলেন।

পুলিশ সুপার বলেন, গতকাল সিদ্ধিরগঞ্জে ৩০ বছরের যে যুবককে গণপিটুনিতে মারা হয়েছে, সে বাক প্রতিবন্ধী ছিল। ছেলে ধরা বিষয়টি গুজব ছিল। আর এই গুজবে এলাকাবাসী জড়িত। আমরা তাদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছি। একটি মহিলাকে মারপিঠ করেছে এবং আজকেও ফতুল্লায় একজনকে মারধর করা হয়েছে। আমরা সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লার ঘটনায় মামলা দায়ের করেছি এবং এসকল ঘটনায় ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ছেলে ধরা সন্দেহে গনপিটুনি একটি ফৌজদারী অপরাধ। আইন নিজের হতে তুলে নিবেন না। গনপিটুনীর ঘটনায় যারা জড়িত তদন্ত করে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরী করা রাষ্ট্রবিরোধী কাজের শামিল। সুতরাং কেউ অপরাধ করে পার পাবেনা। নারায়ণগঞ্জ পুলিশের পক্ষ থেকে গুজবে কান না দেওয়ার জন্য নারায়ণগঞ্জবাসীকে অনুরোধ করা হলো।

হকারদের ব্যাপারে তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদানের পর থেকে আমি মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছি। আমরা মাদকের প্রতি জিরো টলারেন্স। আপনারা জানেন হকারের বিরুদ্ধে আমরা না। তবে অবৈধ ভাবে কেউ ফুটপাত দখল করতে পারবেনা। আমরা অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে। অবৈধ দখলকারীদের উচ্ছেদ করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতেও হবে।

পুলিশ সুপার বলেন, আপনারা জানেন নারায়ণগঞ্জ শহরকে শান্তিময় ও সুন্দর শহর গড়ে তোলার লক্ষে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ কাজ করছে। ইতো মধ্যে মীর জুমলা সড়ক সাধারণ মানুষের জন্য রাস্তা খুলে দেওয়া হয়েছে। আগে অবৈধ দখলদাররা এই রাস্তা দখল করে রাখত। আমরা চাষাড়ার আশেপাশে ও বঙ্গবন্ধু রোডে হকার মুক্ত ফুটপাত উপহার দিয়েছি। সাধারণ মানুষ তাদের ছেলে-মেয়ে নিয়ে চলাফেরা করতে পারছে। আমরা ভূমিদস্যু, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, মাদক নিয়ে কাজ করছি এবং এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

সবশেষে তিনি বলেন, আগামী ২৫ জুলাই রপগঞ্জ থানায় কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন। এ নির্বাচন পূর্বের নির্বাচনের ন্যায় অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে। নির্বাচনে কোন প্রকার বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া হবে না। নির্বাচনে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

বক্তব্য শেষে পুলিশ সুপার সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

0