‘গোষ্ঠী বিশেষকে সহযোগীতা করতে বিআরটিসির ভাড়া ৫৫ টাকা’

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: একটি বিশেষ গোষ্ঠীর কাছে বছরের পর বছর ধরে জিম্মি হয়ে আছে যাত্রীরা। সাধারণ যাত্রীদের কাছ থেকে প্রতিদিন অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে লাখ লাখ টাকা আদায় করে আসছে মহলটি। আর সরকার ও সরকারের সেবা মূলক সংস্থা বিআরটিসি এ বিষয়ে নিরব ভূমিকার মাধ্যমে এ গোষ্ঠী বিশেষকে সহযোগীতা করে আসছে।

যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ ফোরাম নামের একটি সংগঠন ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে বিআরটিসির বাস ভাড়া ননএসি ৩০ টাকা ও এসি ৪৫ টাকা করার দাবিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব তথ্য তুলে ধরে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বেলা ১১টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ ফোরামের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি। অবিলম্বে বর্ধিত বাস ভাড়া প্রত্যাহার করার দাবি সংবাদ সম্মেলন থেকে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে রফিউর রাব্বি বলেন, নারায়ণগঞ্জের পরিবহন খাতটি দীর্ঘদিন ধরেই এক অরাজক পরিস্থিতির মধ্যে পরিচালিত হচ্ছে। ২০১১ সালে মালিকপক্ষ ঢাকা থেকে নারায়ণগঞ্জের একটি মিথ্যা দূরত্বের কথা বলে বাসভাড়া ২২ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ৩১ টাকা করে। যাত্রী ফোরামের আন্দোলনে তখন দুই দফায় কমিয়ে প্রথমে ২৮ টাকা ও পরে ২৭ টাকায় নির্ধারণ করা হয়েছিলো। পরে যাত্রী ফোরামের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে তখন এখানে বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে তাদের এসি ও ননএনি মিলিয়ে প্রায় শতাধিক বাস নামান। আর ননএসিবাস ছিলো ২৭ টাকা, অপর দিকে বিআরটিসির ননএসি বাসের ভাড়া নির্ধারণ করা হয় ২৫টাকা। কিন্তু আমরা লক্ষ করলাম সার্ভিস চালুর ৭ দিনের মাথায় বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ তাদের ননএসি বাস গুলো তুলেনেয়। এরপর গত দুই বছর আগে বেসরকারি এসিবাস ‘শীতল’ চালু হওয়ার পরপরই আবার বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ তাদের সকল এসিবাস ঢাকা-নারায়ণগঞ্জে রুট থেকে তুলে নেয়। তখন বিআরটিসির এসসিবাসের ভাড়া ছিলো ৪৫ টাকা আর শীতল এসিবাসের ভাড়া করা হয় ৫৫টাকা। বিআরটিসি বন্ধ হয়ে গেলে সাধারণ যাত্রীরা বেসরকারি পরিবহনের কাছে পুরোপুরি জিম্মি হয়ে পরে।

গতকাল আবার বিআরটিসি বাস ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রোডে চালু করা হয়েছে। আমরা কর্তৃপক্ষকে সাধুবাদ জানাচ্ছি। সাথে সাথে এর ভাড়া শীতল পরিবহনের সাথে মিলিয়ে ৫৫টাকা করায় আমরা তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছি। আমরা বিআরটিসি কর্তৃপক্ষকে এসিবাসের ভাড়া মন্ডল পাড়া থেকেই ৪৫ টাকা করার ও অতিদ্রুত সর্বোচ্চ ৩০ টাকা ভাড়ায় নন এসি বাস চালু করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এর আগে রফিউর রাব্বি বলেন, বেসরকারি বাস থেকে চাঁদা তোলার জন্য সব সময় সরকারের সমর্থীত একটি গোষ্ঠী তৎপর থাকে। আরা সিন্ডিকেট তৈরি করে জনগণের পাশাপাশি সাধারণ বাস মালিকদেরকেও জিম্মি করে রাখে। আর সরকার ও সরকারের সেবা মুলক সংস্থা বিআরটিসি এ বিষয়ে নিরব ভূমিকার মাধ্যমে এ গোষ্ঠী বিশেষকে সহযোগীতা করে আসছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কমিউনিস্ট পার্টির জেলার সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, বাসদের জেলার সমন্বয়ক নিখিল দাস, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সভাপতি এবি সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, খেলাঘরের সভাপতি রথিন চক্রবতত্রী, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক তরিকুল সুজন, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ধীমান সাহা জুয়েল প্রমুখ।

0