চারপাশে মাদক বিক্রেতা : শামীম ওসমানের জিহাদ বিফল !

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ:
বরাবরই মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কড়া কথা বলেন সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। চড়া গলায় তিনি বলেন, মাদক বিক্রেতা যে দলেরই হউক কোন ছাড় নেই। আমার কোন লোক মাদক ব্যবসা করলে সেও পার পাবে না। তিনি হুংকার দিয়ে বলেন, মাদক ব্যবসা করে বাড়ি করেছেন, গুড়িয়ে দিবো। এ জন্য আমি শামীম ওসমানই যথেষ্ট। বিভিন্ন সময়ে বক্তব্যে মাদক কারবারের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনাও করেছেন আওয়ামীলীগের এই নেতা। তবে এখন শোনা যাচ্ছে, তার চারপাশে যারা রয়েছেন তারা সবাই মাদকের শেল্টাদাতা !

‘মাদক ব্যবসায়ীদের শেল্টারদাতারা অধরা’ শিরোনামে সম্প্রতি স্থানীয় একটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হয়। ওই সংবাদে যাদের ছবি ও নাম এসেছে তারা সবাই শামীম ওসমানের অনুগত নেতাকর্মী হিসেবে পরিচিত। এমনকি অনেকে দলে গুরুত্বপূর্ণ পদেও আছেন। এতদিন তাদেরকে মানুষ ‘নেতা’ জানলেও ওই পত্রিকার সংবাদ দেখে বিষ্মিত হয়েছে মানুষজন। সচেতন মহলের মতে, যে পত্রিকার সংবাদ এসেছে সে পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ওসমান পরিবারের লোক হিসেবে শহরে পরিচিত। বিভিন্ন সময়ে তিনি ওই পরিবারকে প্রচার দেন আবার নেনও কিছু। তাই তার পত্রিকায় এ সংবাদ অনেকে বিশ্বাস করেছেন। যদিও যাদের তিনি মাদকের শেল্টারদাতা বলেছেন তাদের অনেকেই এ সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ করেছেন। কেউ কেউ দাবি তুলেছেন, ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাইতে।

পত্রিকাটি সম্প্রতি মাদক সহ গ্রেপ্তারকৃত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সেক্রেটারী সাইফউদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান ও এর আগে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তারকৃত ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান ঘটনা টেনে এ সংবাদ প্রকাশ করেছেন। সংবাদে মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, ১৮নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্না, ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাশেম শকু, ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেল, সাধারণ সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম, কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল, মীর সোহেল, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, কৃষক লীগ নেতা জিললুর রহমান লিটন, মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলালসহ বেশ কয়েকজন নেতাকে শেল্টারদাতা হিসেবে লেখা হয়েছে। এর মধ্যে কাউন্সিলর শকু বিএনপি নেতা হলেও ওসমান পরিবারের লোক হিসেবে পরিচিত।

সচেতন মহল মনে করেন এ সংবাদ যদি সত্যি হয় তবে শামীম ওসমান কিভাবে মাদকের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণা করবেন। তার অনুগতরা যদি সবাই মাদকের শেল্টারদাতা হয় তবে একা তিনি কী করে মাদকের বিরুদ্ধে লড়বেন। আর যদি সংবাদটি মিথ্যা হয় তবে, কেন শামীম ওসমান ও অনুগতরা এর বিরুদ্ধে জোরালো প্রতিবাদ করছে না।

0