চাষাঢ়া তর্ক বিতর্ক ফতুল্লায় গিয়ে খুন, গ্রেপ্তার ২

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ছুরিকাঘাতে সাকিব (১৪) নামে এক কিশোর হত্যাকান্ডের ঘটনায় ২ তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। শনিবার (২৫ জুন) সকালে অভিযান চালিয়ে যাত্রাবাড়ি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। আটকের তথ্যটি লাইভ নারায়ণগঞ্জকে নিশ্চিত করেছেন ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু।

নিহত সাকিব ফতুল্লার দাপা রেলস্টেশন সংলগ্ন আজাদ মিয়ার বাড়ীর গলির ওহাবের বাড়ীর ভাড়াটিয়া রুবেল (সুমন) মিয়ার ছেলে।

আটককৃতদের নাম, ফতুল্লা স্টেশন এলাকার জনুর ভাড়াটিয়া মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে আতিকুল (১৭) ও দাপা ইদ্রাকপুর এলাকার হবুর বাড়ীর সেকান্দার মোল্লার ছেলে ইসলাম মোল্লা (১৮)।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (ইন্সপেক্টর তদন্ত) মো, সাইফুল ইসলাম লাইভ নারায়ণগঞ্জকে জানান, ছুরিকাঘাতে ১৪ বছর বয়সী এক কিশোর খুন হওয়ার ঘটনায় ২জনকে আটক করা হহছে। নিহত সাকিবের মা নাসিমা বেগম বাদী হয়ে ৫ জনের নাম ফয়সাল(১৮), পারভেজ(২২), আতিকুল(১৭), ইসলাম মোল্লা(১৮) ও সোলেয়মান(১৮) সহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি, গতকাল চাষাঢ়ায় নিহত সাকিবের বন্ধুদের সাথে তর্ক বিতর্ক হয়। পরে রাতে সাড়ে ১০টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে সাকিবসহ তার বন্ধুদের পথরোধ করে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে হাতাহতি হয়। পরে সেখানেই সাকিব ছুরিকাঘাত হয়। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা সাকিবকে মৃত ঘোষনা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হুমায়ুন কবির (ফোর) জানায়, নিহতের মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। মামলার এজাহারনামীয় দুই আসামী কে শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার স্বীকার করেছে। জড়িত অপর আসামীদের গ্রেপ্তার অভিযান অব্যহাত রয়েছে বলে তিনি জানান।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু জানান, আসামীদের আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।