‘চুরি ঠেকাতে সিসি ক্যামেরা বসাতে পুলিশের পরামর্শ’

0

স্টাফ করেসপন্ডেট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী বলেন, প্রথমে বাবা মায়ের দায়িত্ব আপনার ছেলে-মেয়ে কোথায় যাচ্ছে সেটা’র খোঁজ খবর রাখতে হবে। এলাকায় বহিরাগতদের মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব, জনগণের সেবা দেয়া আমার দায়িত্ব ও কর্তব্য। থানায় যেয়ে যদি সেবা না পান সেটারও ব্যবস্থা নেব। যে কোন বিয়ে বা কোন সন্তান হলে বাসা বাড়ি থেকে অমানবিক নির্যাতন করে টাকা আদায় করে হিজরারা। হিজরাদের প্রতি অমানবিক করতে পারবো না, তবে হিজারাদের বিষয়টা পুলিশ দেখবে। এই ওয়ার্ডের মধ্যে বাংলাদেশের বড় ব্যবসায়ীরা এই নিতাইগঞ্জে বসবাস করে। এলাকাবাসী বলছেন, এই এলাকায় অনেক চুরি হয়েছে,অনেক ছিনতাই হয়েছে এবং বহিরাগতদের মাদক ব্যবসা বেড়েছে। আপনারা যত তাড়াতাড়ি পারেন সিসি ক্যামেরা বসানোর ব্যবস্থা করবেন। পুলিশের সাথে অপরাধীদের সম্পর্ক থাকবে না। পুলিশের সেবা নিতে টাকা লাগবে না যদি নেয় আমাকে জানাবেন। মন্ডলপাড়া ট্রাক থেকে চাঁদা নেয় আপনারা বলছেন, এখানে কোন চাঁদাবাজ মাদক ব্যবসায়ী দুর্নীতিবাজ পুলিশও থাকবে না।

১২ জানুয়ারী বিকাল ৪টায় এনসিসি ১৫নং ওয়ার্ডের বংশাল এলাকায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার আয়োজনে বিট পুলিশিং ও উঠান বৈঠকের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, ইন্সপেক্টর (অপরাধ) আব্দুর হাই, ইন্সপেক্টর (লজিষ্টিক) সঞ্জয় কুমার, ১৫নং ওয়ার্ডের কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি শংকর কুমার সাহা, এড. সুলতান উদ্দিন নান্নু, পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি শহিদুল ইসলাম সোহেল, সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান টুলু, বিকাশ চন্দ্র সাহা, ভোলানাথ ঘোষ সহ অন্যান্যরা।

কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস বলেন, অন্যান্য ওয়ার্ডের তুলনায় আমার ওয়ার্ডে অপরাধ কম। আমার ওয়ার্ডের পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন কাজে ৬টি টিমের কাজ চলমান। এই এলাকায় আইনশৃংঙ্খলা পরিস্থিতি যদি উন্নতি করতে হয় তাহলে পুলিশের পাশাপাশি জনগনের মধ্যে এলাকাবাসীর মধ্যে সংগঠন গড়ে তুলতে হবে। এ ওয়ার্ডে ৩টি ক্রাইমজোন আছে । সেগুলো হলো, বন্দর সেন্ট্রাল ঘাট থেকে নিতাইগঞ্জ খাল ঘাট, শীতলক্ষ্যা ওয়াকওয়ে, হংস হল থেকে থানা পুকুর পাড় পর্যন্ত এসব এলাকায় বহিরাগতরা এসে মাদক বিক্রি করে।

এ সময় এলাকাবাসী বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করতে হবে। এবং হিজরারা বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে টাকা পয়সার জন্য উৎপাত করেন। এ এলাকায় ছেলে-মেয়েদের খেলাধূলার জায়গা নেই। এ এলাকায় শীতলা মন্দিরে চুরি হয়েছে। শীতলা মন্দির,কয়েকটি বাড়ি,কয়েকটি দোকানের চুরি হয়েছে। পুলিশের টহল বাড়িয়ে দিতে হবে। পুলিশের সাথে অপরাধিদের সম্পর্ক থাকবে না।

0