চে‌য়ে‌ছিলাম শামীম ওসমান দে‌শে বড় একজন মন্ত্রী হউক: সেলিম ওসমান

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: অনেক বার শামীমকে বিপদে ফেলা হয়েছে। জোড়া খুনের মামলায় ফেলা হয়েছে, অনেক সময় নিজের গুরুও তাকে গ্রেপ্তার করিয়েছে। বিভিন্ন সময় জেলখানায় গেছে। অনেক বিপদ আসছে, আরও আসতেও পরে। শামীমকে বলবো মানুষের জন্য হলেও কাজ করতে হবে।

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের ৬০ তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শনিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে এ কথা বলেন তাঁর বড় ভাই ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমান।

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের পাশে ফতুল্লায় নম পার্কে পরিবারের পক্ষ থেকে জন্মদিনের আয়োজন করা হয়। দীর্ঘ প্রায় ৩ ঘন্টার পুরো অনুষ্ঠানটি তানভীর আহম্মেদ টিটু সঞ্চালনায় প্রাণবন্ত হয়ে উঠে। তানভীর আহম্মেদ টিটু অনুষ্ঠানের মধ্যমনি সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের শ্যালক। যিনি নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সভাপতি, নারায়ণগঞ্জ ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক, নারায়ণগঞ্জ ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি।

অনুষ্ঠানে সেলিম ওসমান বলেন, ‘আমরা ৫ ভাই-বোন। শামীম ওসমান ছোট বেলা থেকেই আমাদের থেকে আলাদা। শামীম সব সময়ই আমাদের আদরের। চেয়ে ছিলাম নিজে রাজনীতি করবো না। মন্ত্রীত্বের প্রতি আমাদের লোভ নাই। কখনোই আমাদের পরিবারের কারোর লোভ নাই। আমার দাদারও ছিল না। বাবারও ছিল না। আমার ভাইয়েরও ছিল না। আমাদেরও নাই। কিন্তু ভেবে ছিলাম এদেশের একটা বড় মন্ত্রীত্ব শামীমের ধারা আসবে।’

সেলিম ওসমান আরও বলেন, ‘শামীমের ৬০ বছর হয়ে গেছে কিন্তু আমি ভাবতেও পারিনি। শামীম নিজেকে ৬০ বছরের বুড়া ভাবলে চলবে না। তোমার নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য কাজ করতে হবে। আজ তুমি বলো, তোমার আগামীর পরিকল্পনা কি? আমি চেষ্টা করবো একজন কর্মী হয়ে কাজ করতে। আমার জন্য দোয়া করেন আর না করেন, শামীমের জন্য দোয়া করেন। আমার থেকে বেশি শামীমকে বেঁচে থাকতে হবে। নারায়ণগঞ্জের জন্য, জেলার মানুষের জন্য।’

রাত সাড়ে নয়টায় অনুষ্ঠানের মধ্যমণি শামীম ওসমান বিশাল আয়োজনস্থলে এসে উপস্থিত হন। শুরুতেই এই আলোচিত রাজনীতিবিদের শৈশব থেকে শুরু করে রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ও অবদানের কথা তুলে ধরেন পরিবারের সদস্যরাসহ, নিকট আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও ঘনিষ্ঠজনরা। এসময় অনেকেই আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন।

রাত এগারোটার দিকে উৎসবমুখর পবিবেশে পরিবারের সদস্য ও ঘনিষ্ঠজনদের নিয়ে কেক কেটে নিজের ষাটতম জন্মদিন পালন করেন সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। এ সময় প্রচুর আতশবাজি ফোঁটানো হয়।

নিজের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে শামীম ওসমান এই আয়োজনের জন্য পরিবারসহ উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং নিজের জন্য দোয়া চান। সবার কাছে দোয়া চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্যেও।

0