টানা ছু‌টির পঞ্চম‌ দি‌নে না.গ‌ঞ্জে হঠাৎ বে‌ড়ে‌ছে যান ও লোক চলাচল

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: এতদিন পাড়া মহল্লা গুলোতে লোকের অবাধ চলা ফেরার অভিযোগ পাওয়া গেছে, এখন সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে নগরীর প্রধান সড়ক গুলোও। গত কয়েক দিনের তুলনায় পরিবহন বেড়ে গেছে বঙ্গবন্ধু সড়কে। করোনা ভাইরাসের বিস্তাররোধে ১০ দিন সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার সবাইকে ঘরে থাকার নির্দেশনা দিলেও পঞ্চম দিনেই অনেকে নিজ নিজ প্রয়োজনে ব্যক্তিগত পরিবহন নিয়ে বেরিয়ে গেছে।

রাস্তায় বেড়ে গেছে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, মোটরসাইকেল এবং প্যাডেলচালিত রিকশা। সেসব বাহনে চড়ে গন্তব্যে ছুটছে লোকজন। যদিও বেশিরভাগ লোকের মুখেই মাস্ক দেখা গেছে।

নগরীর চাষাঢ়া, দুই নং রেল গেটসহ বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য দিনের চাইতে আজ সোমবার (৩০ মার্চ) সরকারি ছুটির পঞ্চম দিনে রাস্তায় ব্যক্তিগত পরিবহনের সংখ্যা তুলনামূলক বেশি। বিশেষ ছুটির মধ্যেও জীবিকা অর্জনের জন্য মানুষ ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে বা পায়ে হেঁটে বেরিয়েছে।

গণপরিবহন না পেয়ে অনেকে হেঁটেই গন্তব্যে ছুটতে দেখা যায়। সময় বাড়ার সাথে সাথে বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাতেও বেশ কিছু হকার বসতে দেখা গেছে।

এছাড়া চাষাঢ়াসহ বেশ কয়েকটি স্ট্যান্ডে দেখা যায়, যাত্রীর অপেক্ষায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা, মোটরসাইকেল, রিকশা ও প্রাইভেটকার দাঁড়িয়ে রয়েছে। জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়া মানুষ ভাড়ায় এসব পরিবহনে নিজের গন্তব্যে যাচ্ছে।

তবে, করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদে থাকতে কারও কারও মুখে মাস্ক পরা দেখা গেছে।

এদিকে, অনেকে জীবিকার তাগিদে মাস্কের দোকান নিয়ে বসেছেন অনেকে। অনেকেই আবার চা-পানের বাসমান দোকান নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বঙ্গবন্ধু সড়কে।

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা বারিক বলেন, আমরা রাত দিন চেষ্টা করছি মানুষকে নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজার রাখছে। তারপরেও মানুষ রাস্তায় বেড় হচ্ছে। তাই বিষয় গুলো জেলা প্রশাসন অফিসের কন্ট্রোল রুমে জানান, তারা সাথে সাথে ব্যবস্থা নিবেন।

উল্লেখ্য, চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে বৈশ্বিক মহামারিতে পরিণত করোনা ভাইরাসের বিস্তাররোধে গত ২৬ মার্চ থেকে সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে গণপরিবহনও। মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমণের এ ভাইরাসকে ঠেকাতে দেশবাসীকে ছুটির এ সময়ে ঘরে অবস্থানের পরামর্শ দিয়েছে সরকার। সেজন্য রাস্তায় র‌্যাব -পুলিশের পাশাপাশি তৎপর সশস্ত্র বাহিনীও।

0