জনগণের মঙ্গল কামনায় কাউন্সিলর আফজালের দোয়া ও কোরআন খতম

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৪নং ওয়ার্ডসহ দেশবাসীর মঙ্গল কামনার জন্য, ২বারের নির্বাচিত কাউন্সিলর আফজাল হোসেন ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া ও মিলাদের আয়োজন করা হয়েছে। এ সময় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৪নং ওয়ার্ডে বাসীর মঙ্গল কামনার জন্য কোরআন থেকে তেলওয়াত ও বিভিন্ন মাদ্রাসায় কোরআনের খতম দেয়া হয়েছে।


মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) বন্দর উপজেলার নবীগঞ্জ ইসলামবাগ ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফজাল হোসেনের বাসভবনে ওই দোয়ার আয়োজন করা হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপাস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়পার্টির আহ্বায়ক ও বন্দর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু।

মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে সিটি কর্পোরেশনের ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিল প্রার্থী ও মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন বলেন, আমাকে বিগত সময়ে এই ওয়ার্ডের মানুষ কাউন্সিলর করে কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন। আমি সব সময় চেষ্টা করেছি মানুষের পাশে থেকে সেবা করার জন্য। তারপরেও আমি আমার ওয়ার্ডবাসীর কাছে ক্ষমা চাই যদি কেউ আমার কোন কাজে কষ্ট পেয়ে থাকেন। আমি সব সময় চেষ্টা করেছি সকলকে সর্বোচ্চটা দেয়ার জন্য। তারপরও বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কারণে আমি হয়তো সবার ইচ্ছা গুলো পূরণ করতে পারিনি। আমি আমার ওয়ার্ডবাসীর কাছে সব সময় ঋণী। ওয়ার্ডবাসী আমাকে কাউন্সিলর নির্বাচিত করার পর আমি চেষ্টা করেছি সকলের উপকারে আসতে। আমি আজ বুক উচুঁ করে বলতে পারবো আমি কারো যদি কোন উপকার নাও করে থাকি অন্তত কারো ক্ষতি আমি করিনি, পাশাপাশি আমার সামনে কারো ক্ষতি হবে সেটিও কখনো হতে দেইনি।

তিনি আরও বলেন, আমি কখনো জনগণের সম্পদ নষ্ট হতে দেই নাই। ড্রেনের কাজ, উন্নয়ণ মূলক কাজ, করোনায় মানুষের বাসায় গিয়ে খাবার পৌঁছানো কোন কিছুতে আমি কোন ঘাটতি রাখিনি। আমি চেষ্টা করেছি আমার দ্বারা যাতে কেউ কোন কষ্ট না পায়। আমার বিভিন্ন আচরণে হয়তো অনেকে কষ্ট পেতে পারে, আমি সকলের কাছে ক্ষমা চাইছি। বাবা-মা যেমন সন্তানকে ক্ষমা করে দেয়। আপনারাও আমাকে ক্ষমা করে দিবেন যদি আমি আপনাদের কোন কষ্ট দিয়ে থাকি।

আফজাল বলেন, ২৪নং ওয়ার্ডে এখনো অনেক কাজ চলমান আছে এবং আরও অনেক কাজ বাকী আছে। আমি চাই আপনারা তৃতীয়বারের মতো আমাকে ভোট দিয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত করে আপনাদের অসমাপ্ত কাজ গুলো করার সুযোগ করে দিবেন। আজকে আমি মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছি আমার এই ওয়ার্ডবাসীসহ দেশবাসীর মঙ্গলকামনা করার জন্য। আমার বাবা নাই এই ওয়ার্ডের মুরুব্বিদের দেখলে আমার কাছে মনে হয় না আমার বাবা নাই। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন যাতে আল্লাহ তাকে বেহেস্তনসীব করে। আমার মা এখনো জীবিত আছে আমার মায়ের জন্য সকলে দোয়া করবেন যাতে আমি আমার মায়ের দোয়া নিয়ে এই ওয়ার্ডবাসীর মঙ্গল বয়ে আনতে পারি। সবাই আমাকে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট দিয়ে আরেকবার আপনাদের গোলাম হয়ে থাকার সুযোগ দিবেন।

প্রধান অতিথি বক্তব্যে জেলা জাতীয়পার্টির আহ্বায়ক ও বন্দর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু বলেন, আমাদের জাতীয় পর্টির গর্ব আফজাল। তিনি তার সততা দিয়ে কাউন্সিলর হয়ে এই ওয়ার্ডের মানুষের সেবা করেছেন। আপনাদের কারো সাথে যদি কোনদিন কোন ভুল করে থাকে তাহলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আমি আপনাদের কাছে আহ্বান করছি আপনারা নিঃসন্দেরহ আফজালকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতে পারেন। আফজাল যাতে আপনাদের এলাকার উন্নয়ণের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারে তার জন্য তাকে আপনাদের পাশে রাখুন। আপনারা আফজালকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন এটাই আপনাদের কাছে আামার অনুরোধ।

সিটি নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে মেয়র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনের বিষয়ে তিনি বলেন, আসন্ন নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে আমরা কোন মেয়র প্রার্থী দিবো না। আমাদের কেন্দ্রের নির্দশনা অনুযায়ী আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহর করবো। তবে আমাদের কাউন্সিলর প্রার্থী হয়ে কেউ যদি লরতে চায় তাহলে আমরা সেই ক্ষেত্রে তাদের সমর্থণ দিবো।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক হাজী মো. আশরাফ উদ্দিন, উপজেলা জাতীয় পার্টির সদস্য মাহবুব শিকদার, জাতীয় পার্টির ২৪নং ওয়ার্ডে যুগ্ম আহবায়ক নুর ইসলাম, জাতীয় পার্টির নেতা অপু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, সদস্য সচিব জাহিদ আলম পাপ্পু, যুগ্ম আহবায়ক মো. রায়হান, সদস্য হাবিবুর রহমান, চাঁনবক্স মসজিদ কমিটির সভাপতি ও আওয়ামীলীগ নেতা মো. ইবরাহিম, কাইতাখালি মসজিদের সহ সভাপতি মো. শহীদ হোসেন, বিশিষ্ট সমাজসেবক মো. জামান,  ইসলামবাগ সমাজসেবক মো. মনির হোসেন, বক্তারকান্দি জামে মসজিদের সাধারণ সম্পাদক আইয়ুব হাজী, খাজা ইসমাইল হোসেন চিশতির (র.) সভাপতি মো. আফজাল হোসেন শোভনসহ ভিবিন্ন পঞ্চায়েত কমিটির নেতৃবৃন্দ।