জিপিএ-৫ কাগজপত্রেই ভালো দেখায়: জিএম ফারুক

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দেশের বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষায় জিপিএ-৫ এর বদলে সিজিপিএ-৪ (কিউমুলেটিভ গ্রেড পয়েন্ট অ্যাভারেজ) করার উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রনালয়।

বুধবার (১৩ জুন) আন্ত. শিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সঙ্গে বৈঠক করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বৈঠকে তিনি সিজিপিএ পুনর্বিন্যাস করে একটি খসড়া উপস্থাপনের নির্দেশ দেন। ফলশ্রুতিতে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি), সেকেন্ডারি স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) এবং হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষায় আর জিপিএ ৫ পাওয়ার সুযোগ থাকছে না। আগামী জেএসসি পরীক্ষা থেকেই – সিজিপিএ ৪-এর মধ্যে ফল প্রকাশের উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এইদিকে, শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের এই উদ্যোগটি নিয়ে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন শিক্ষাবিদদের মধ্যে নানা আলাপ-আলোচনা শুরু হয়ে গেছে। তবে, অধিকাংশের মতে, ‘গ্রেডিং ব্যবস্থায় পরিবর্তন না এনে শিক্ষার মান উন্নয়নে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের নানা উদ্যোগ নেওয়া উচিত। ’

এব্যাপারে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও চেঞ্জেস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জিএম ফারুক বলেন, বর্তমান সময়ে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা যে করুণ হয়েছে যে, কোন জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর রেসাল্ট কাগজপত্রে ভালো দেখালেও সত্যিকার অর্থে সে তেমন কিছুই জানে না। যা সুস্পষ্টভাবে বোঝা যায় ভার্সিটি পরীক্ষার সময়ে।

তিনি আরও বলেন, গ্রেডিং সিস্টেম পরিবর্তনে শিক্ষা মন্ত্রনালয় এ জিপিএ-৫ দশা থেকে সিজিপিএ-৪ করার চেষ্টা করছে। এটা দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য কতটুকু ভালো হবে, সিজিপিএ-৪ ব্যবস্থা চালু হলে তা বোঝা যাবে।

৪৯৩
0