টিটুর ব্যবস্থাপনায় ননএমপিও শিক্ষকদের পাশে দাঁড়ালো ‘ভালো’

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: করোনা শুরু হতেই ক্লাস বন্ধ হয়ে গেল। শিক্ষার্থীদের পদচারণে মুখর হয়ে থাকা বিদ্যালয় খালি হয়ে গেল। বন্ধ হয়ে গেলে শিক্ষকদের উপার্জনের পথ। কীভাবে সংসারের আর্থিক দৈন্য দশা কাটানো যায়? এই ভাবনায় অনেকের কেটে গেছে প্রায় ১৬টি মাস। সংসারের পরিচালনা করতে গিয়ে অনেকেই জড়িয়েছেন ঋণের ঝালে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে অসহায় পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্থ নারায়ণগঞ্জের ননএমপিও শিক্ষকদের পাশে অবশেষে দাঁড়িয়েছে আমেরিকা প্রবাসীদের সংগঠন ‘ভালো’। 

নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সভাপতি তানভীর আহম্মেদ টিটুর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে সৈয়দপুর বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয় অডিটরিয়ামে  ননএমপি ভুক্ত শিক্ষকদের মাঝে সেই অর্থ বিতরণ করেছেন জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ।

তানভীর আহম্মেদ টিটু জানান, ‘আমার আপন বড় ভাই ডা. শামীম আহমেদ, উনি আমেরিকায় থাকে। উনার একটা ক্লিনিক আছে সেখানে। নারায়ণগঞ্জের আরও কিছু সন্তান আছে আমেরিকায়। তাদের নিয়ে একটি সংগঠন বানিয়েছে ‘ভালো’। করোনায় আমেরিকায় বাংলাদেশী ও সেই দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে এই সংগঠনের পথচলা। সেই সংগঠনের চেয়ারম্যান আমাদের নারায়ণগঞ্জের শাহরিয়ার নামের একটি ছেলে। তখন আমার ভাইয়া আমাকে বললো তারাও কিছু করতে চায়, কিন্তু কি করা যায়? তখন আমি মাননীয় সাংসদ শামীম ওসমান বললেন, নন এমপি ভুক্ত শিক্ষকদের জন্য কিছু করতে বললেন। সেই প্রেক্ষিতে আমরা সৈয়দপুর এলাকার নন এমপি ভুক্ত শিক্ষকদের অনুদান দিয়েছি। যদিও সেটি খুবই স্বল্প। কিন্তু আমাদের কথা হলো কেউ যদি এই অনুদানে একটু ভালো থাকতে পারে, তাহেল সেটাই আমাদের সার্থ্যকতা।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডিসি মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, দেড় বছর যাবৎ করোনার কারনে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। তার মধ্যে যারা দিনমজুর তারা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তার থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শিক্ষকরা। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের মানবিক সহায়তার জন্য হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার লোকদের মাঝে আর্থিক ও খাদ্য সহায়তা পৌছিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে শিক্ষক পরিবারের সন্তান। আমার পরিবারের অধিকাংশ(বাবা-মা,ভাই,আমার স্ত্রী) বিদ্যালয়ের শিক্ষক। আমি শিক্ষক পরিবারের সদস্য হয়ে নিজে গর্ব করি। কিন্তু এই করোনার মহামারির কারনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শিক্ষক সমাজ। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন ও বিত্তবান ব্যক্তিরা শিক্ষকদের সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছে।আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।

আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানটি সৈয়দপুর বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক তোফায়েল আহাম্মদের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা জহুরা ও আওয়ামী লীগ নেতা মো. ফজর আলী।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নাজির হোসেন ফকির, নারায়ণগঞ্জ মহানগর কৃষকলীগের সভাপতি আরমান হোসেন জুয়েল, গোগনগর আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোসলেহ উদ্দিন মন্ডল, ইউপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. নূর হোসেন সওদাগর, ইউপি সদস্য মো. তোফাজ্জল হোসেন, মো. সৈকত হোসেন, মো. রফিকুল ইসলাম ও নাজমা বেগম প্রমূখ।

0