দগ্ধ শিশু সাফওয়ানের মর্মান্তিক মৃত্যু

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মা ও ৩সন্তানসহ অগ্নিদগ্ধ হয়ে বেঁচে থাকার যুদ্ধ চলছে গত ২দিন ধরে। এর মধ্যে সবচেয়ে কনিষ্ঠ্যতম সদস্য সাফওয়ান। বয়স মাত্র ৫ বছর। ছোট্ট শরীর। পোড়া যন্ত্রনা সইতে পারলেন না। হেরে গেলেন। এই ৪জনকে শনিবার (৬ এপ্রিল) ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছিল।

এর আগে ওই দিন নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ হয়ে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় মা ও তার তিন শিশু সন্তান দগ্ধ হয়। এর পর তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নেয়া হয়।

দগ্ধ চারজন হলেন- ফাতেমা বেগম (৩৫) এবং তার তিন সন্তান সাফওয়ান (৫), ফারিয়া (৯) ও রাফি (১১)।
তবে, রবিবার (৭এপ্রিল) দিবাগত রাতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে শেষ পর্যন্ত হেরে যায়। ৫বছরের সাফওয়ান ছোট্ট শরীরটা নিয়ে পোড়া যন্ত্রনা আর সইতে পারেনি। রাত সাড়ে নয়টার তার মৃত্যু হয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে কর্মরত পুলিশ সদস্য এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

শনিবার, ওই দগ্ধদের হাসপাতালে নিয়ে আসা স্থানীয় বাসিন্দা সাব্বির হোসেন বলেছিলেন, তাদের ঘর থেকে চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে অগ্নিকান্ড দেখি। তখন তাদের উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে আসি। বাসার সিলিন্ডার লিকেজে আগুন ধরে ব‌িস্ফোরণ থেকে ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এসময় তারা দগ্ধ হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মজিবর বলেছিলেন(৬ এপ্রিল), খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি।

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানিয়েছিল, চারজনের শরীরই মারাত্মকভাবে দগ্ধ হয়েছে। তাদের চারজনের অবস্থাই গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

 

এ ঘটনার আগের নিউজটি পড়তে ক্লিক করুন:  ফতুল্লায় সিলিন্ডার থেকে আগুন: ৩ সন্তানসহ মা দগ্ধ

0