‘দাম বেড়েছে কিন্তু শ্রমিকের মজুরি বাড়েনি’

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণা করা ও নিত্যপণ্যের দাম কমানোসহ শ্রমিক বিরোধী আইন বাতিল করে গণতান্ত্রিক শ্রম আইন প্রণয়নের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র। শুক্রবার (২৭ মে) বিকেল ৫টায় সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল চৌধুরী বাড়ি এলাকায় এ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেন।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, নিত্যপণ্যসহ সব কিছুর দাম বেড়েছে কিন্তু শ্রমিকের মজুরি বাড়েনি। শ্রমিকরা দৈনন্দিন জীবনের ব্যয় সামাল দিতে অতিরিক্ত কাজের ঝুঁকি নিচ্ছে। তাতেও পরিবারের ন্যূনতম চাহিদা পুরন করতে পারছে না। চরম সংকটে দিনাতিপাত করছে। দিন-রাত পরিশ্রম করে শ্রমিকরা যে মজুরি পায় তা দিয়ে তাদের দু বেলা দু মুঠো ডাল-ভাত খেয়ে জীবন ধারণ করা সম্ভব হচ্ছে না। আধপেটা খেয়ে না খেয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। তাদের এই সংকটের সুযোগ নিয়ে শিল্প কারখানার মালিকরা দৈনিক ৮ ঘণ্টা কাজের পরিবর্তে শ্রমিকদের দিয়ে দ্বিগুণেরও বেশি সময় কাজ করিয়ে নিচ্ছে। সাপ্তাতাহিক ছুটির দিনেও তাদের বিশ্রাম নেয়ার সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। জোরজবরদস্তি ওভারটাইম ডিউটি করতে বাধ্য করা হচ্ছে। মাত্রাতিরিক্ত কাজের চাপে শ্রমিকরা মানসিক ও শারীরিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ছে। মালিকদের এই অন্যায় ও জুলুমের বিরুদ্ধে সরকারের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। শ্রমিকরা কোন কথা বললে চাকুরি থাকে না। ছাঁটাই, মামলা, হয়রানি করে তাদের জীবন অতিষ্ঠ করে তুলেছে। এই অবস্থা আর চলতে দেয়া যায় না। তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলে দাঁতভাঙা জবাব দেয়া হবে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, গার্মেন্টসে অর্ডার বেড়েছে ফলে রপ্তানি প্রবৃদ্ধি বাড়ছে, জিডিবি বাড়ছে। সরকারের হিসেব অনুযায়ী মাথাপিছু আয় বেড়েছে কিন্তু শিল্প কারখানার শ্রমিকদের মজুরি বাড়ে নাই। সারাদেশের শ্রমিকরা মজুরি বাড়ানোর দাবি তুলেছে কিন্তু সরকার তা বিবেচনায় নিচ্ছে না। এতে শ্রমিকদের মনে চরম ক্ষোভের জন্ম নিচ্ছে। এই ক্ষোভ বিক্ষোভে রূপান্তরিত হলে পরিণতি ভালো হবে না। অনাকাঙ্খিত কোন পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার আগেই শ্রমিক ছাঁটাই, মামলা-হয়রানি বন্ধ করাসহ বর্তমান বাজার পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে নিম্নতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণা ও শ্রমিক বিরোধী আইন বাতিল করে গণতান্ত্রিক শ্রম আইন প্রণয়নসহ নিত্যপণ্যের দাম কমিয়ে শ্রমজীবি সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে আনার জন্য নেতৃবৃন্দ সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র পাঠানটুলী অঞ্চলের নেতা আমজাদ হোসেন। বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের জেলা কমিটির সভাপতি এম এ শাহীন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, আঞ্চলিক নেতা মোঃ মমিন, শাহীন ও সুজনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।