দিপুর আদরে মোহসীনের বরণ, বটবৃক্ষ শামীম ওসমান

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সপ্তাহ খানেক পরই নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন। এরই মধ্যে আওয়ামীপন্থি আইনজীবীরা ২ ভাগে বিভক্ত হয়ে গিয়েছিলেন। প্যানেলও ঘোষণা হয়েছিল আলাদা। পৃথক ভাবেই করেছেন গণসংযোগ, চাই ছিলেন দোয়া। অবশেষে প্রত্যাহারের শেষ দিন নানা নাট‌কিয়তার মধ্যে দিয়ে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করলেন বিদ্রোহী গ্রুপ। আর প্রত্যাহার শেষে আদালত পাড়ায় এসে অপর গ্রুপকে বুকে জড়িয়ে নেন।

রোববার (১৯ জানুয়ারি) শেষ বিকেলে আদালত পাড়ায় বিদ্রোহের অবসান শেষে শুরু হয় মিলন পর্ব। আওয়ামীপন্থি আইনজীবীদের দুটি গ্রুপের প্যানেল প্রার্থীরা এক সাথে জড়ো হয়। দিপু-পলু প্যানেলের আনিসুর রহমান দিপু এসে মোহসীন-মাহবুব প্যানেলের মোহসীনকে গালে আদর করেন। আ্যাড. মোহসীনও বুকে জড়িয়ে বরণ করে নেন অ্যাড. দিপুকে। সে সময় পাশে ছিলেন নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী সংসদ সদস্য শামীম ওসমান।

উপস্থিত অন্যান্য আইনজীবীরা বলছিলেন, ‘ পুরো দৃশ্যে বটবৃক্ষের মতো আছেন শামীম ওসমান’।

আদালতপাড়া থেকে আমাদের প্রতিনিধি জানান, মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের পর পরই আদালত পাড়ায় এসে হাজির হন নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমান। সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের মোহসীন-মাহবুব পরিষদের সাথে বিদ্রোহী প্যানেল বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ ও গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির মনোনিত দিপু-পলু পরিষদকে মিলিয়ে দেন তিনি।

পাশে দাঁড়িয়ে থেকে আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে অ্যাড. খোকন সাহা বলেন, ভূল বুঝাবুঝির কারণে আমাদের ২টি প্যানেল হয়েছিল। আমাদের নেতা একেএম শামীম ওসমানের নেতৃত্বে একটি প্যানেলকে চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামীতে তাদের (দিপু-পলু পরিষদ) মূল্যায়ন করা হবে।

আর আগে বিদ্রোহীগ্রুপ দিপু-পলু পরিষদের নেতৃত্বদানকারী অ্যাড. আনিসুর রহমান দিপু গণমাধ্যমকে বলছেন, কোন রকম চাপ বা কারও হুমকী‌তে নয়। দ‌লের বৃহৎ স্বা‌র্থে নিজ প্যা‌নে‌লের প্রার্থীতা প্রত্যাহার ক‌রে‌ছি।

প্রসঙ্গত, আজই (রোববার ১৯ জানুয়ারি) প্রার্থীতা যাচাই, বাছাইয়ের শেষ দিন ছিল। ২০ জানুয়ারি চূড়ান্ত বৈধ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। আগামী ২৯ জানুয়ারি সমিতির ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

0