দুদকের জালে না.গঞ্জের সাবেক ও বর্তমান ২ এমপি

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সম্পদের তথ্য গোপন, অবৈধ ব্যবসার মাধ্যমে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও দেশের বাইরে অর্থ পাচারের অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের ২ সাবেক ও বর্তমান সাংসদের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তাদের শিগগিরই জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে দুদক সূত্র জানিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য বলেন, সংশ্লিষ্টদের ব্যাপারে অনুসন্ধান চলছে। অনুসন্ধান শেষে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে আইনগত প্রক্রিয়ায় তা নিষ্পত্তি করা হবে। দলমত-নির্বিশেষে রাজনৈতিক নেতাদের অনুসন্ধানের আওতায় আনাকে স্বাগত জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

দুদক সূত্র জানায়, বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৭৫ ভাগ গ্রেডিংয়ের ভিত্তিতে অনুসন্ধান কাজ শুরু করে দুদক। এ ক্ষেত্রে কে কোন দলের তা দেখার সুযোগ নেই।

জানা গেছে, প্রভাবশালীদের সম্পর্কে দুদক তথ্য নিচ্ছে রাজস্ব বোর্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক ও ভূমি রেজিস্ট্রেশন অধিদফতরসহ বিভিন্ন সূত্র থেকে। এ ছাড়া সাবেক ও বর্তমান এমপিদের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া হলফনামা থেকেও তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করছে সংস্থাটি। দুদকের অনুসন্ধান চলছে, এমন ব্যক্তিদের তালিকায় রয়েছে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন। বিএনপি নেতারা ছাড়াও ইতিমধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নারায়ণগঞ্জের একজন বর্তমান সংসদ সদস্যর বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান চলছে।

এ বিষয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘আমরা দেখছি দুদক সরকারের এমপি, প্রভাবশালী নেতাসহ অনেককেই জিজ্ঞাসাবাদের আওতায় আনছে। এটা ভালো দিক। তবে দেখার বিষয় হচ্ছে, এর মধ্যে দুদক কোনো বৈষম্য করে কি না। আমরা মনে করি রাজনৈতিক নেতাদের বিষয়ে অনুসন্ধানের ক্ষেত্রে দুদকের কোনো ধরনের বৈষম্য করা ঠিক হবে না। তাহলে দুদক বিশ্বাসযোগ্যতা হারাবে। আশা করছি দুদক বিতর্কের ঊর্ধ্বে থেকে কাজ করে জনগণের আস্থা অর্জন করবে। এ ক্ষেত্রে কে কী বলল তা দেখার বিষয় নয়।’

0