‘দু-জনকে হত্যার পর লাশ নদীতে ভাসিয়ে দেয়া হয়’

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার দুই নর-নারীর লাশের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন, শহরের বাবুরাইল এলাকার দিলু চৌধুরীর ছেলে মো. রোহান চৌধুরী (১৯) ও পালপাড়া এলাকার তাপসী রাণী ঘোষ (৪৫)। বুধবার (২৬ জানুয়ারী) বিকেলে শীতলক্ষ্যা নদীর হাজীগঞ্জ ঘাট ও একরামপুর এলাকা থেকে দুজনের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় নৌ পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি শাহ জামান জানান, তাপসি রাণীর ভাই ননী গোপাল ঘোষ বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। তাপসী রানীকে অজ্ঞাত আসামিরা হত্যার পর লাশ নদীতে ভাসিয়ে দিয়েছে বলে মামলায় অভিযোগ করেছেন বাদী। রোহান চৌধুরীকে তার বন্ধুদের কেউ হত্যা করতে পারে বলে স্বজনরা জানিয়েছে। এব্যাপারে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ নৌ থানা পুলিশের উপপরিদর্শক ফোরকান মিয়া জানান, শীতলক্ষ্যা নদীতে দুই স্থানে দুইটি লাশ দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী পুলিশকে জানায়। পরে নদীতে ভাসমান অবস্থায় লাশ দুইটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ভিক্টোরিয়া হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। এর মধ্যে নারীর মরদেহের পায়ে ও পেটে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে যুবকের শরীরের কোথাও কোন আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে তাদের মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।