দেওভোগে নাতনীকে ধর্ষণের চেষ্টায় নানার বন্ধু আটক

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় নাতনিকে ধর্ষণের চেষ্টা করার অভিযোগ উঠেছে নানার বন্ধুর বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে দেওভোগ ভূইঁয়ারবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে ভুক্তভোগী শিশুর মা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ করে একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় শিবু চন্দ্র দাস (৪৫) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। তিনি বন্দর থানার কেওঢালার মৃত জতিন্দ্র চন্দ্র দাসের ছেলে ও ফতুল্লার দেওভোগ ভুইঁয়ারবাগ এলাকার সম্ভু সাহার ভাড়াটিয়া।

মামলায় সূত্রে জানা যায়, বাদীর বাবার সাথে আটককৃত শিবু চন্দ্র দাস বিভিন্ন স্থানে রান্নার কাজ করতো। তাই শিবু চন্দ্র দাস প্রায় সময় তাদের বাসায় যাতায়াত করতো। বৃহস্পতিবার বাদীসহ পরিবারের সকল সদস্যরা বাসায় না থাকায় শিবু সকাল সাড়ে নয়টার দিকে বাদীর বাসায় গিয়ে বাদীর ১২বছর বয়সী শিশুকে মেয়েকে একা পেয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে। এ সময় শিশুটি আত্নরক্ষার্থে ডাক-চিৎকার করলে পার্শ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে।এ সময় শিবু চন্দ্র দাস ঘটনাস্থল থেকে কৌশলে পালিয়ে যায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রউফ লাইভ নারায়ণগঞ্জকে জানান, ফতুল্লা মডেল থানায় ভুক্তভোগী শিশুর মা বাদি হয়ে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করে। আমরা সাথে সাথে অভিযান পরিচালনা করে দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে দেওভোগ পানির ট্যাংকি এলাকা থেকে অভিযুক্ত শিবু চন্দ্র দাস কে আটক করি। শুক্রবার তাকে বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

0