দুর্ধর্ষ ক্যাডার মাকসুদের শ্যালক যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় যুবলীগ নেতা শাহ ফয়েজ উল্লাহকে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ আটক করেছে। ২৮ মার্চ (শনিবার) রাত ৯টায় জামতলা নিজ বাসার সামনের অফিস থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এর আগে বিকাল বেলায় শাহ ফয়েজ এর দ্বিতীয় স্ত্রী আরোহী হাওলাদার (২২) ট্রিপল নাইনে (৯৯৯-পুলিশের জরুরী সেবা) ফোন করলে, থানা পুলিশ এসে আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন। আরোহী পরে তার স্বামী শাহ ফয়েজ এর নামে নারী নির্যাতন ও যৌতুকের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযোগ পেয়ে অভিযান চালিয়ে শাহ ফয়েজকে গ্রেপ্তার করেন।

গ্রেপ্তারের সতত্যা নিশ্চিত করে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, দ্বিতীয় স্ত্রীরে মারধর করার অপরাধে নারী ও শিশু মামলায় আটক করা হয়েছে। জামতলা বাসার সামনের অফিস থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শাহ ফয়েজ উল্লাহ নারায়ণগঞ্জ শহরের জামতলার বাসিন্দা শাহজাহান মিয়ার ছেলে। তিনি এক সময়ের দুর্ধর্ষ ক্যাডারআততায়ীদের হাতে খুন হওয়া আলোচিত নুরুল আমিন মাকসুদের শ্যালকও জেলা যুবলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক। তার স্ত্রী আরোহী হাওলাদার কলেজ রোড এলাকার মৃত খলিল হাওলাদারের মেয়ে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আরোহী হাওলাদার ২০১৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি জামতলা এলাকার শাহজাহান মিয়ার ছেলে শাহ ফয়েজ উল্লাহ ফয়েজকে (৪৩) বিয়ে করেন। এরপর তাদের ঘরে একটি সন্তান হয়। বিয়ের পর থেকেই ফয়েজ আরোহীকে নানাভাবে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আরোহী ৮ লাখ টাকা প্রদান করে। এর মধ্যে ফয়েজ পরিবারের কোন ভরন পোষন না দিয়ে সম্প্রতি আরো ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। টাকা না পেয়ে ২৭ মার্চ তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে ফয়েজ। পরে ৯৯৯ এ ফোন করলে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে ও চিকিৎসা করায়।

0