‘ধনীরা খায় বিদেশী খাবার, গরিবরা খায় ভেজাল’

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘ভেজাল খাদ্য উৎপাদনের বিরুদ্ধে একটি অধিদপ্তর রয়েছে। তাদেন প্রতিনিয়তই নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করার কথা। এখন তাদের উচিৎ হবে জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া।’

রোববার (৩০ জুন) দুপুরে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ এ কথা বলেন। এর আগে সকাল থেকে নিরাপদ খাদ্য আন্দোলন বাংলাদেশের ব্যানারে গণ অনশন ও আলোচনা সভা চলছিলো।

জেলা পুলিশ সুপার বলেন, আজ বাংলাদেশের মানুষ নিরাপদ খাদ্য পাচ্ছে না। ভেজাল মুক্ত খাদ্য পাচ্ছে না। বিশুদ্ধ পানি পাচ্ছে না। বিশেষ করে শীতলক্ষ্যা, বুড়িগঙ্গ ও মেঘনা। এ নদী গুলোর পানি এমন অবস্থা হয়েছে, পানিতে হাত দিলে হাতে ঠোসা পরে যাবে। তাই আজকে যারা অনশন করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানাই বিষয়টি উপলব্ধ করতে পারায়।

পুলিশ সুপারের ভাষ্য মতে, ‘যারা ধনী, তারা বিদেশ কিংবা কোন নামী দামি রেস্টুরেস্ট থেকে এনে খাবার খান। কিন্তু যারা গরিব কিংবা সাধারণ মানুষ তারাতো ভেজাল খাবার খেয়ে জীবন যাপন করছেন। তাই আমি আহব্বান জানাবো, এসকল অধিদপ্তরে যারা রয়েছেন, আপনারা বিষয় গুলো দেখবেন। আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে যা যা সহযোগীতা প্রয়োজন তা আমরা করবো।

এসময় পুলিশ সুপার বলেন, ‘আজ যারা অনুশন করেছেন। আমি মনে করে আপনারা বেশিক্ষন অনুশন করলে আপনাদের অসুবিদা হবে। আপনারা অনশন ভঙ্গ করে সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরে যান। আমি আপনাদের পাশে আছি।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসপি) মো. নূরে আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) সুবাস চন্দ্র সাহা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক সার্কেল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম, ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম হোসেন, জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার কর্মকর্তা (ডিআইও-২) মো. সাজ্জাদ রোমন প্রমুখ।

0