নগরী‌তে ম‌দের বার: যা বল‌লেন আইভী-‌সে‌লিম-শামীম ওসমান

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জে একটি মদের বার প্রতিষ্ঠাকে কেন্দ্র করে পাড়া-মহল্লার অলিগলিসহ সর্বত্র চল‌ছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। সামাজিক ও ধর্মীয় সংগঠন থেকে শুরু করে জেলা প্রশাসনের মাসিক সভাতেও এই মদের বারের বিষয়টি উত্থাপিত হচ্ছে।

শহরের ঐতিহ্যবাহী নূরমসজিদ ও নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের ঠিক পিছনেই মদের বারটির অবস্থান। যা জেলা জুড়ে মুসলিম ধর্মপ্রাণ মানুষেদের ধর্মানুভূতিতে তীব্রভাবে নাড়া দিয়েছে।

এই আলোচিত-সমালোচিত মদের বারটির প্রসঙ্গে মেয়রসহ জেলার প্রভাবশালী দুই সংসদ সদস্যদের মন্তব্যের বিষয়ে উৎসুক জনতার আগ্রহের কমতি নেই।

স্থানীয় একটি গণমধ্যমে মেয়র আইভীসহ দুই সহোদর সংসদ সদস্য তা‌দের প্র‌তি‌ক্রিয়া জানান।

মদের বারটি প্রসঙ্গে নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেন, মদের বার বিষয়ে আমি কিছু জানি না। তবে যদি নারায়ণগঞ্জে মদের বার হয়ে থাকে, তাহলে এই বিষয়ে সিটি কর্পোরেশন বলতে পারবে। কেননা ব্যবসায়িক লাইসেন্স তাদের কাছ থেকে সংগ্রহ করতে হয়। নারায়ণগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী নূর মসজিদের পেছনে মদের বারটি স্থাপন হওয়ার বিষয়টি কোনভাবেই কাম্য নয়।

‘মদের ব্যবসায় সম্পর্কে অবগত না করে সিটি কর্পোরেশন থেকে নির্ধারিত একটি ব্যবসায়ের কথা বলে লাইসেন্স নেওয়া হয়েছে’ সি‌টি কর‌পো‌রেশ‌নের এক কর্মকর্তার দা‌বি, এমন প্রশ্নের জবাব শা‌মীম ওসমান বলেন, এটা হতেই পারে না। সিটি কর্পোরেশনকে ভুল তথ্য দিয়ে লাইসেন্স নিবে, এটা আমি বিশ্বাস করি না।

নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান বলেন, মদের বারের বিষয়ে আমিও শুনেছি। তবে চাষাঢ়ার মতো একটি গুরুত্বপূর্ণস্থা‌নে মদের বারের মতো প্রতিষ্ঠান কোনভাবেই কাম্য নয়। এতে নারায়ণগঞ্জে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হবে। যেখানে নারায়ণগঞ্জ ক্লাব ব্যাকআপ দিচ্ছে, সেখানে এমন একটি বারের প্রয়োজন হয় না। তবে এসকল প্রতিষ্ঠান শুরু করতে হলে সিটি কর্পোরেশনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে অনুমোদন নিতে হয়। সেক্ষেত্রে বারটির বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ভালো বলতে পারবে।

মদের বার প্রসঙ্গে মেয়র আইভী অনেকটা পাশ কাটিয়ে গেছেন। তি‌নি প্র‌তি‌বেদ‌কের প্র‌শ্নের জবাব না দি‌য়ে ব‌লে‌ছেন, আমি বেড়া‌তে ‌এসেছি। এ বিষ‌য়ে জান‌তে হ‌লে রোববার অফিসে আস‌বেন।

0