নদী দূষণের অপরাধে ৪টি কারখানার বিরুদ্ধে মামলা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নদী দূষণের অপরাধে সিদ্ধিরগঞ্জের ৩টি ও ফতুল্লার ১টি ডাইং কারখানার বিরুদ্ধে মামলা করেছে জেলা পরিবেশ অধিদপ্তর। রবিবার (২৮ নভেম্বর) জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক শেখ মুজাহিদ বাদী হয়ে ৪টি কারখানার বিরুদ্ধে মামলা করেন।


রবিবার (২৮ নভেম্বর) জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

মামলায় আসামীরা হলেন- সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি এলাকার সায়মা নীট ফ্যাশন ও জাগরণ টেক্সটাইল মিলস লি. এর মো. মহিউদ্দিন দেওয়ান, সীমা নীটওয়্যার এন্ড ডাইং (প্রা.) লি. এর আব্দুর রশিদ মিয়া, সাইফুল ইসলাম ও রশিদ মিয়া, এবং ফতুল্লার কুতুবপুর ওয়াবদারপুল এলাকার রাইডার থ্রেড এন্ড এক্সেসরিজ ইন্ডাষ্ট্রিজ লি. এর মো. শরীফুল ইসলাম সরকার।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কারখানাগুলি পরিবেশগত ছাড়পত্র গ্রহণ ব্যতীত স্থাপন করা হয়েছে এবং দূষণ নিয়ন্ত্রণে তরল বর্জ্য পরিশোধনাগার বা ইটিপি নির্মাণ ব্যতিরেকে পরিচালনা করা হচ্ছে। সীমা নীটওয়্যার এন্ড ডাইং, জাগরণ টেক্সটাইল মিলস লি. ও সায়মা নীট ফ্যাশন কারখানা তিনটি ২০১২ সাল এবং রাইডার থ্রেড এন্ড এক্সেসরিজ ইন্ডাস্ট্রিজ লি. ২০১৮ সাল থেকে পরিবেশগত ছাড়পত্র ও ইটিপি স্থাপন ব্যতীত পরিচালিত হচ্ছে। গত বুধবার (২৪ নভেম্বর) কারখানাগুলি সরেজমিন পরিদর্শন করা হয়। পরিদর্শনকালে কারখানা থেকে সৃষ্ট অপরিশোধিত তরল বর্জ্যের নমুনা সংগ্রহ করে সীলগালা করে পরীক্ষার জন্য পরিবেশ অধিদপ্তর, ঢাকা গবেষণাগারে প্রেরণ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ (সংশোধিত-২০১০) এর ৪ (২), ৯(১ ও ২) ও ১২(১) ধারা লঙ্ঘনের অপরাধে কারখানাগুলির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। আসামীদের গ্রেফতারসহ দূষণ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত কারখানার উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আদালতে আবেদন করা হয়। নদী দূষণ বন্ধে জেলা পরিবেশ অধিদপ্তর থেকে নিয়মিতভাবে মামলা দায়ের প্রক্রিয়া চলমান থাকবে।