নন্দীপাড়ায় কিশোরদের ভাইরাল ভিডিও: আটক ৩

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নন্দীপাড়া এলাকায় একদল কিশোর কর্তৃক এক কিশোরকে কোপানোর ভিডিও চিত্র ভাইরাল হওয়ার ঘটনায়, র‌্যাবের গোয়েন্দা দল ছায়া তদন্ত করে ৩ যুবককে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) ফতুল্লার নন্দীপাড়া ও ভোলাইল এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো, মুন্সিগঞ্জ সিরাজদিখান উপজেলার ইছাপুর এলাকার মৃত বাচ্চু ভুইয়ার ছেলে অভি (২০), একই জেলার টংগীবাড়ী উপজেলার বেজগাঁও (ছত্রিশ) এলাকার লাল মিয়া শেখের ছেলে তুহিন (২২) ও নন্দীপাড়া এলাকার মৃত শরিফুলের ছেলে রাজু (২২)।

র‌্যাব-১১ উপ-পরিচালক (স্কোয়াড্রন লীডার) এ কে এম মুনিরুল আলম এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, নন্দীপাড়া এলাকায় ১৫/১৬ জন দুষ্কৃতিকারী কিশোর গ্যাং চক্রের সদস্যরা দোকানপাট ভাংচুরসহ চাঁদাদাবী ও ছিনতাই করতে থাকে। এ সময় ভিকটিম মিরাজুল ইসলাম দিপু তাদেরকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে বাধা প্রদান করলে কিশোর গ্যাং এর সদস্যরা তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে, সাথে থাকা ধারালো কিরিচ, চাপাতি, লোহার রড ও চাকু দিয়ে আঘাত করে। এতে ভিকটিমের ডান ও বাম হাত এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরতর রক্তাক্ত জখম হয় এবং তার নিকট হতে দুষ্কৃতিকারীরা টাকা ছিনিয়ে নেয়।

তিনি আরও জানান, সেখানে উপস্থিত ভিকটিমের বড় ভাই খোকনকেও তারা ধারালো দেশি অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে সে গুরতর জখম হয়। ভিকটিমদের ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে দুষ্কৃতিকারী কিশোর গ্যাং এর সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ভিকটিম মো. মিরাজুল ইসলাম দিপু বাদী হয়ে ১৪মে ফতুল্লা থানায় ৮ জন এজাহার নামীয় ও অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

র‌্যাব জানায়, আসামীদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রমের জন্য ফতুল্লা মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।