নারায়ণগঞ্জ কোর্টে টাউট বাটপার বেড়ে গেছে: এ্যাড.মোহসীন

0

স্টাফ করেসপন্ডন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: টাউট-বাটপার এই শ্রেনির লোক আমাদের কোর্টে অনেক বেশি মাত্রায় হয়েছে। অনেক গরীব মানুষ আছে যাদের পায়ে স্যান্ডেল পর্যন্ত নাই. সেই সমস্ত টাউট বাটপাররা তাদের মামলার নেওয়ার কথা বলে টাকা পয়সা নেয়। গরীব মানুষরা তাদের নাম পর্যন্ত বলতে পারে না।

বুধবার (১১ আগস্ট) নারায়ণগঞ্জে করোনাকালে প্রয়াত ৬ জন আইনজীবীর শোক সভায় এ কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাড.মোহসীন মিয়া ।

এ্যাড.মহসীন মিয়া আরও বলেন, এমন অনেক ঘটনা ঘটেছে। যে আমাকে বলে আপনি মামলা করেছেন কোন অবস্থায় আছে। তা জিজ্ঞাস করে অথচ আমি নিজেই জানি না। এগুলো এখন প্রতিনিয়তই হচ্ছে সে কারনে আমরা সিনিয়রদের ও অফিসারদের সাথে কথা বলেছি। কথা বলেও গারদখানাকে আমরা কোনো ভাবেই ঠিক করতে পারছি না। যে কাজটি দালালরা মূলত করে থাকে তা হলো আসামীর গাড়ি আসলেই তারা আড়াইশত টাকা দিয়ে একটি ওকালত নামা কিনে গারদে পাঠিয়ে দেয়। কিছু পুলিশ আছে আসামী আসলে তারা টাউট বাটপারকে ফোন করে থাকে। তাদের দ্বারা ক্লাইন্ডেরা যে কী পরিমান স্বীকার হন! পরেদিন দেখা যায় অন্য কোনো আইনজীবীদের কাছে মামলাটি চলে আসছে তাদের আত্মীয় স্বজন নিয়ে। আইনজীবীরা সেখানে গিয়ে দেখে আরেক জন ওকালত জমা দিয়ে জামিন না মঞ্জুর করে রাখছে।

নারায়ণগঞ্জ আদালত প্রাঙ্গনে নবনির্মিত ডিজিটাল বার ভবনের নিচতলায় বুধবার এ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

১২ আগস্ট অনুষ্ঠিত উক্ত শোক সভা ও দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতে পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এড. এস এম ওয়াজেদ আলী খোকন, জিপি মেরিনা বেগম, এপিপি এ্যাড. সেলিনা ইয়াসমিন, আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এ্যাড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল, বর্তমান সভাপতি অ্যাড. মো. মোহসীন মিয়া, আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মো. মাহবুবুর রহমান, সিনিয়র আইনজীবী এ্যাড.সরকার হুমায়ূন কবিরসহ আরও অনেকে।

0