নারী, শিশু ধর্ষণ, হত্যা বিচার ও শাস্তির দাবিতে মহিলা ফোরামের মানববন্ধন

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: অব্যাহত নারী, শিশু ধর্ষণ ও হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার ও শাস্তির দাবি এবং ঘরে বাইরে নারীর প্রতি সহিংসতার প্রতিবাদে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের মানববন্ধন হয়।

বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৪টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মহিলা ফোরামের সংগঠক জেসমিন আক্তারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শম্পা বসু, বাসদ জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের জেলা সভাপতি সুলতানা আক্তার, মহিলা ফোরামের সংগঠক রাজলক্ষী, মুন্নি সর্দার সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন মহিলা পরিষদ নেত্রী শাহানারা বেগম।

নেতৃবৃন্দ বলেন, নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা ভয়াবহ মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। মানবাধিকার সংস্থা আইন ও সালিশী কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী ২০১৯ সালে ১৪১৩ জন নারী ও শিশু ধর্ষণের শিকার হন। যেটা ২০১৮ সালে ছিল ৭৩২ জন। ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ৭৬ জনকে। অর্থাৎ ধর্ষণের মাত্রা তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশজুড়ে নারী- শিশুর উপর নির্যাতন ও যৌন সহিংসতার ৫১ দশমিক ৬২ ভাগই ধষর্ণের দখলে। বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে অপরাধীরা বেপরোয়া হয়ে গেছে। এছাড়া কিছু নাটক, সিনেমা, ওয়াজ মাহফিলে ধমীয় আলোচনার নামে নারী বিদ্বেষী বক্তব্য, পর্ণে ছবি- পত্রিকা নারীর প্রতি সহিংসতার জমিন তৈরি করছে। ভোগবাদী ও মৌলবাদী দৃষ্টিভঙ্গী নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণের পরিবেশ তৈরী করেছে। ধর্ষণের শিকার ভিকটিমকে আসামী পক্ষের আইনজীবিরা ব্রিটিশ আমলে ১৮৭২ সালের প্রণীত স্বাক্ষ আইনের ১৫৫(৪) ধারা অনুযায়ী নানা ধরনের আপত্তিমূলক প্রশ্ন করে। এখনো বাতিল হয়নি। নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধে ধর্ষণ সহ সকল অপরাধের দৃষ্টান্তমূলক বিচার করা যেমন প্রয়োজন তেমনি এর বিরুদ্ধে গণআন্দোলন গড়ে তোলার জন্য নারী পুরুষ নির্বিশেষে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

0