না.গঞ্জবাসী ফোন করলেই পৌঁছে যাবে ‘খাদ্যসামগ্রী ও ঔষধ’

0

নারায়ণগঞ্জে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় আক্রান্ত কিংবা সন্দেহভাজনদের নিকট জরুরি খাদ্যসামগ্রী ও ঔষধ পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে কার্যক্রম শুরু করেছে করোনা রেসপন্স টিম।

বুধবার (১ এপ্রিল) রাতে নারায়ণগঞ্জ শহরের সাধু পৌলের গীর্জা সংলগ্ন কার্যালয়ে টিমের প্রধান সমন্বয়ক মাহবুব সুমন এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য গণমাধ্যমে তুলে ধরেন এবং ‘ইমার্জেন্সি’ নামক অলাভজনক কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

গবেষক ও আন্তর্জাতিক পরিবেশ কর্মী মাহবুব সুমন সাংবাদিকদের জানান, সাধারণত দেশের বিভিন্ন স্থানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। অনেকে নিজ উদ্যোগেই লক্ষণ প্রকাশ পেলে নিজেকে আবদ্ধ করে রাখছেন। সেদিক থেকে তারা যখন লকডাউনে থাকেন তাদের জরুরি খাদ্যসামগ্রী এবং ঔষধ প্রয়োজন হয়। সে সময় আমরা তাদের বাসায় সামগ্রী সর্বোচ্চ নিরাপত্তা সহ পৌঁছে দেওয়ার কাজ করবো। আমাদের হটলাইনে ফোন দিলেই হোম ডেলিভারি পৌঁছে দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, এটি সম্পূর্ণ অলাভজনক একটি উদ্যোগ। আমাদের ভলেন্টিয়াররা পিপিই পরিধান করে সামগ্রী ক্রয় এবং পৌঁছে দেওয়ার কাজ করবেন। সর্বনিম্ন ৫০ টাকা ডেলিভারি ফিতে নারায়ণগঞ্জ শহর ও আশপাশের এলাকায় আমরা সার্ভিস দেওয়ার চেষ্টা করবো। নিরাপদ দূরত্বে সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে বিকাশ, রকেট কিংবা নগদ আমরা পেমেন্ট গ্রহণ করবো। এতে করে গ্রাহক এবং ডেলিভারি দাতা নিরাপদ থাকবেন।

কি ধরনের পণ্য পৌঁছানো হবে জানতে চাইলে মাহবুব সুমন জানান, মূলত প্রেসক্রিপশনে উল্লেখিত ঔষধ, শিশু খাবার, কাঁচাবাজার, মুদি বাজার আমরা সরবরাহ করে থাকবো। আমাদের ভলেন্টিয়াররা প্রশাসনের অনুমতি ও নিজ নিজ পরিচয় পত্র সহ এ কাজ করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, ইমার্জেন্সির ভলেন্টিয়ার ইলিয়াস জামান, ফারহানা মানিক মুনাসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ।

0