না.গঞ্জসহ দেশের গার্মেন্টস গুলোর জন্য সুসংবাদ

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: করোনা পরিস্থিতিতে তছনছ বিশ্ববাজার। বিশ্ব মহামারি এই ভাইরাসে স্থবির বিশ্ব অর্থনীতির চাকা। এই বিপর্যয়কারী ঢেউয়ের আঘাত লেগেছে বাংলাদেশেও। ইতিমধ্যেই বন্ধ হয়ে গেছে দেশের সকল শিল্পকারখানাসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। সরকারিভাবেও নিজের এবং পরিবারের স্বার্থে বাড়ীর বাহিরে বাহির না হবার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বিজিএমইএ এবং বিকেএমইএ’র অনুরোধের পর বন্ধ রয়েছে নারায়ণগঞ্জসহ দেশের সকল গার্মেন্টস শিল্প প্রতিষ্ঠান। এমনিতেই ভয়ানক পরিস্থিতি অর্থনীতিতে। কেননা, করোনা ভাইরাস আগমনের পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে নানা ধরনের দুঃসংবাদ শুনতে হয়েছে দেশের গার্মেন্টস শিল্পকে। একের পর এক ক্রয়াদেশ বাতিল হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিজিএমইএ। বিজিএমইএ’র মতে করোনার কারণে পোশাক খাতে
ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে এসেছে।

কোটি কোটি ডলারের অসংখ্যা ওর্ডার বাতিল ও স্থগিত হয়ে গেছে। এমন অবস্থায় তৈরি হওয়া পণ্য না নেয়ায় বিপাকে পড়েছে গার্মেন্টস মালিকরা। এই দুঃসময়ে সুসংবাদ জানালো বাংলাদেশের অন্যতম ক্রেতা প্রতিষ্ঠান এইচঅ্যান্ডএম। বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছরে ২৫ হাজার ৫০০ কোটি টাকার পোশাক কিনে থাকে এইচঅ্যান্ডএম। যার সিংহভাগ পোষাক উৎপাদন হয় নারায়ণগঞ্জ থেকে। সুইডেনভিত্তিক এই ক্রেতা প্রতিষ্ঠানের নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীক বিসিকসহ অনেক এলাকার গার্মেন্টে এইচএন্ডএম এর জন্য পণ্য তৈরী করা হয়।

এইচঅ্যান্ডএম প্রতিষ্ঠান থেকে গণমাধ্যমকে জানানো হয়েছে, করোনা’র প্রভাবে অনেক প্রতিষ্ঠান কারখানায় প্রস্তুত হওয়া পণ্য নিতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছে। কিন্তু, সেই পথে হাঁটবে না এইচঅ্যান্ডএম। কারখানায় যেসব পোশাক তৈরি হয়েছে তারা তা নেবে।

মূল্যছাড়ের জন্য দর–কষাকষি করবে না বলে এইচঅ্যান্ডএম জানায়, চুক্তি অনুযায়ী সেসব পোশাকের দাম পরিশোধ করবে।

0