‘না.গঞ্জের আইনজীবীর মৃত্যুতে পরিবার পাবে ১১ লাখ টাকা‘

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বর্তমান সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল নারায়ণগঞ্জের আইনজীবীদের ভবিষ্যৎ করে দিয়েছেন। একজন আইনজীবীর মৃত্যুতে তার পরিবারের সদস্যরা ১১ লাখ টাকা পাবে, এমন নিশ্চয়তা এনে দিয়েছেন। আর এই কৃতিত্ব আপনাদের সাধারণ আইনজীবীদের। কারন আপনারা গত নির্বাচনে উনাদেরকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করেছিলেন বলেই এটা সম্ভব হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান সোমবার (২৭ জুন) এক অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

সেলিম ওসমান বলেন, আমি জুয়েলকে স্যালুট জানাই। আর মহসিনের মত আইনজীবী নেতৃত্বে থাকলে আপনাদের কোন আইনজীবীকে সন্দেহ করার মত পরিস্থিতি হবেনা একথা গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি।

আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মোহসীন মিয়া-মাহবুবু পরিষদের ১৭জনকেই বিজয়ী করতে সাধারণ আইনজীবীদের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন এই সংসদ সদস্য।

নগরীর চাষাড়ার বাঁধন কমিউনিটি সেন্টারে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত ও সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ মনোনীত এ প্যানেল পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি উপস্থিত ছিলেন।

সেলিম ওসমান বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “তৈমুর ভাই আমরা পারি নাই, কিন্তু ওরা পেরেছে। যারা পেরেছে তাদেরকে পুরস্কৃত করেন। আপনি কোন দল করেন, সেটা বিষয় না। নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নের জন্য এই ১৭ জনকে ভোট আপনি দিবেন। যদি আপনি এই নারায়ণগঞ্জের সন্তান হয়ে থাকেন, এই ১৭টা ভোট আমি আপনার কাছে ডিমান্ড করলাম তৈমুর ভাই।

সেলিম ওসমান আরও বলেন, ইতোমধ্যে আইনজীবী সমিতির ভবনের একতলা সম্পন্ন হয়েছে। এই প্যানেলের সকলে বিজয়ী হলে পরদিনই আমি তাদেরকে নিয়ে বসবো, আপনাদের ভবিষ্যত উন্নয়ন নিয়ে পরিকল্পনা করবো। বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিনের উৎসবে এই ভবনের উদ্বোধন করে দ্বিতীয় তলার ছাদ ঢালাই কাজ শুরু করা হবে এবং মুজিব বর্ষের মধ্যেই ৩ তলা সম্পন্ন করা হবে বলে আমি আশা প্রকাশ করছি। প্রয়োজনে আমি ব্যবসায়ীদের সেখানে নিয়ে যাবো। ব্যবসায়ীদের থেকে বিভিন্ন প্রকার সহযোগীতা নিয়ে আইনজীবী সমিতির ভবন সম্পন্ন করবো এবং নারী আইনজীবীদের জন্য আলাদা একটি ফ্লোর থাকবে। আমি নারায়ণগঞ্জের আইনজীবী সমিতির উন্নয়ন দেখে মরতে চাই। আপনারা আমাকে ১৭জন মানুষ দেন আমি আপনাদের আইনজীবী সমিতির আধুনিক ভবন দিবো।

মোহসী-মাহাবুব প্যানেলের প্রার্থীদের উদ্দেশ্যে সেলিম ওসমান বলেন, আলোচনায় সকল সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। আপনারা একত্রিত থাকলে দেখবেন নির্বাচনে মনে হবেনা আপনাদের বিপরীতে কোন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিল। তবে আপনাদের সবাইকে সাধারণ আইনজীবীদের কাছে কথা দিতে হবে, আপনাদের কাছে কোন সাধারণ আইনজীবী গিয়ে সহযোগীতা পায়নি এমন অভিযোগ যেন কোন দিন না উঠে। আপনারা সাধারণ আইনজীবীদের যথাযথ সম্মান প্রদান করবেন।
এ সময় মোহসিন-মাহাবুব প্যানেলের সকলে হাত তুলে সাধারণ আইনজীবীদের যথাযথ সম্মান প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন এবং উপস্থিত সাধারণ আইনজীবীদের সকলেই মহসিন-মাহাবুব প্যানেলের সবাইকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে দুই হাত তুলে আশ্বাস প্রদান করেন।

বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ এর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক অ্যাডভোকেট আব্দুর রশিদ ভূইয়া এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোহাম্মদ আলী, জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের নারী সাবেক সদস্য অ্যাভোকেট হোসনে আরা বেগম বাবলী, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্টি এর সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল ইসলাম ভূইয়া, জেলা জাতীয় পার্টি আহবায়ক আবু জাহের, বন্দর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়া সাজনু, আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

0