না.গঞ্জের পুরাতন রেল লাইন সরানো হচ্ছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে পুরাতন লাইন গুলো তুলে নতুন করে স্থাপনের কাজ শুরু হয়ে গেছে। দেশি-বিদেশি প্রায় শতাধিক শ্রমিক এই কাজে নিয়জিত রয়েছেন।

সোমবার (৫ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত কমলাপুর আইসিডি গেট থেকে গোপীবাগ পর্যন্ত পুরাতন রেল লাইন খুলে ফেলা হয়েছে।

এর আগে ৪ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে এই সংস্কার কাজ। এ বস লাইন দ্রুত খুলার কাজে বেকু ব্যবহার করা হচ্ছে।


বাংলাদেশ রেলওয়ের জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, পদ্মা সেতু রেলসংযোগ প্রকল্পের আওতায় ঢাকা থেকে গেন্ডারিয়া অংশে তিনটি পৃথক রেললাইন নির্মাণের কাজ চলছে। কাজটি দ্রুত সম্পন্ন করার লক্ষ্যে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলকারী সব ট্রেন চলাচল ৪ ডিসেম্বর থেকে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের কাজ শেষ হলে দ্রুত এই লাইনে আবার ট্রেন চলাচল শুরু হবে।

ট্রেন চলাচল কত দিন বন্ধ থাকবে, তা বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়নি। তবে রেলের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এ কাজ শেষ করতে সাড়ে তিন মাস লাগতে পারে।

তবে, প্রকল্প সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, কোন রকম জটিলতা সৃষ্টি না হলে ২ মাসের মধ্যেই এই কাজ শেষ করা সম্ভব।


এদিকে, চলমান কাজের ট্রেন লাইন বন্ধ ঘোষণা বাস্তবায়নের পর থেকে নারায়ণগঞ্জ থেকে যাত্রীদের বাধ্য হয়ে বাসে করে ঢাকায় যাতায়াত করতে হচ্ছে।

এতে একদিকে যেমন যানজটে পড়ে ভোগান্তি হচ্ছে, অন্যদিকে বাসে ভাড়া কয়েক গুণ বেশি লাগায় নিম্ন ও মধ্যম আয়ের যাত্রীরা চাপে পড়েছেন।

যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ ফোরামের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি বলেন, ‘ট্রেন চলাচল সাড়ে তিন মাস বন্ধ রাখলে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ বাড়বে। জনদুর্ভোগের কথা বিবেচনা করে কম সময়ে কাজ শেষ করার জন্য রেলওয়ের প্রতি আহ্বান জানাই।’